সর্বশেষ

  বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ওয়ান ডে সিরিজ শুরু   যাদুকাটা নদীর তীরে পণতীর্থ বারুণী স্নান আজ   ধন্যবাদ ১৭ পদাতিক ডিভিশনকে : আতিয়া মহলের বাসিন্দারা উদ্ধার   সিলেটের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন ‘স্প্রিং রেইন’ চলছে   সিলেটে জঙ্গি আস্তানায় প্যারা-কমান্ডোর অভিযান শুরু   সিলেটে জঙ্গি আস্তানা : ঘটনাস্থলে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম   ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে সদর উপজেলা যুবলীগের বিক্ষোভ   আজ জাতীয় গণহত্যা দিবস   আতিয়া মহলের বাসিন্দার প্রশ্ন : আমরা কি জিম্মি?   পুলিশ বক্সে ঢোকার চেষ্টা করেছিল আত্মঘাতী যুবক!   টুকের বাজারে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন   কী আছে জঙ্গি আস্তানার আতিয়া মহলের জিম্মিদের ভাগ্যে?   ঢাকায় বিমানবন্দরের সামনে আত্মঘাতী হামলায় এক জঙ্গি নিহত   আতিয়া মহলে অভিযান এসেস করতে ঘটনাস্থলে প্যারা-কমান্ডো দল   আতিয়া মহলে জিম্মি আছেন দু’শতাধিক মানুষ   জঙ্গি আস্তানায় অভিযান: উৎকণ্ঠায় অপেক্ষা উৎসুক জনতার   অশ্রুসিক্ত নয়নে স্বামী মহসীন আলীর স্বাধীনতা পুরস্কার গ্রহণ করলেন স্ত্রী সায়রা মহসীন   জঙ্গি আস্তানায় অভিযানে সোয়াত, অ্যাম্বুলেন্স প্রবেশ   দক্ষিণ সুরমায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ ঘিরে ফেলেছে সোয়াত: যে কোন সময় অভিযান   সিলেট পৌঁছেছে সোয়াত টিম : চলছে মূল অভিযানের প্রস্তুতি

চুনারুঘাটের মণিপুরী অধ্যুষিত ছয়শ্রীতে আজ মহারাসলীলা

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-২৫ ০০:১৫:৩০

চুনারুঘাট প্রতিনিধি : বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৫ ॥ বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আজ বুধবার রাতে চুনারুঘাটের ছয়শ্রী গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে মুনিপুরীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব মহারাসলীলা।

মণিপুরী ঐতিহ্যের ৭৪তম বাৎসরিক প্রধান ধর্মীয় উৎসব উত্তর ছয়শ্রী মহাপ্রভু মণ্ডপে বুধবার রাত ১১টায় মঙ্গলারতির মাধ্যমে শুরু হয়ে চলবে বৃহস্পতিবার ভোররাত পর্যন্ত। রাস উপলক্ষ্যে ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন উৎসবের আহবায়ক হরিমোহন সিংহ। এদিকে নিরাপত্তার ব্যাপারে চুনারুঘাট থানা পুলিশ বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে।
 
প্রতি বছর পূর্ণিমা তিথিতে অনারম্বরভাবে অনুষ্ঠিত হয় মহারাস। হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার মণিপুরী অধ্যুষিত ছয়শ্রী গ্রামে অগ্রায়নের শুরুতেই উৎসবের সাড়া পাওয়া যায়। জেলার বিভিন্ন স্থান থেকেও মণিপুরী স¤প্রদায়সহ জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে অনেকেই ছুটে আসেন মহারাসলীলা উপভোগ করতে।

মণিপুরী নৃত্যকলা শুধু ছয়শ্রী নয়, গোটা ভারতীয় উপমহাদেশ তথা বিশ্বের নৃত্যকলার মধ্যে একটি বিশেষ স্থান দখলে করে আছে। মহারাসলীলায় শিশু থেকে শুরু করে কিশোর কিশোরী সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে রাতের বেলায় রাস উৎসব হয়ে উঠে সবচেয়ে আকর্ষণীয়। রাখাল-নৃত্য দিনের বেলায় হলেও রাখাল-নৃত্যের পর থেকেই সন্ধায় শুরু হয় রাসলীলা। শুরুতেই পরিবেশিত হয় রাসধারীতের অপূর্ব মৃদঙ্গ-নৃত্য। মৃদঙ্গ-নৃত্য শেষে প্রদীপ হাতে নৃত্যের তালে তালে সাজানো মঞ্চে প্রবেশ করেন শ্রী রাধা সাজে সজ্জিত একজন নৃত্যশিল্পীবৃন্দা। তার নৃত্যের সঙ্গে বাদ্যের তালে তালে পরিবেশিত হয় মণিপুরী বন্দনা সঙ্গীত। শ্রীকৃষ্ণ রূপধারী বাঁশি হাতে মাথায় কারুকার্যখচিত ময়ূর গুচ্ছধারী এক কিশোর নৃত্যশিল্পী তার বাঁশির সুর শুনে রজগোপী পরিবেশিত হয়ে শ্রী রাধা মঞ্চে আসেন। শুরু হয় সুবর্ণ কংকন পরিহিতা মণিপুরী কিশোরীদের নৃত্য প্রদর্শন।

মেলায় এবার অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশহুদুল কবীর ও ওসি অমূল্য কুমার চৌধুরী আসার কথা রয়েছে।

রাস উৎসব উপলক্ষ্যে ছয়শ্রী এলাকায় মেলা বসে। কৃষি সরঞ্জাম, মাটির তৈরি জিনিসপত্র, ঘরকন্যার সামগ্রীসহ নানা দ্রব্যের পসরা সাজিয়ে বসেনে বিক্রেতারা। সারারাত চলে মেলা।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/একেএ/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত