সর্বশেষ

  প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন আল্লামা বরকতপুরী আর নেই   সিলেট বিভাগের প্রথম দুই শহীদের কবরে শ্রদ্ধাঞ্জলি   ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি   সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ   দিরাইয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস উদযাপন   “দেশের উন্নয়নে আলেম-উলামাসহ সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে”   আফসর খান রাত্রিকালিন মিনি ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন   বিজয় দিবসে সিলেট মহানগর যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি   বিজয়ানন্দে রঙিন সিলেট: শ্রদ্ধাভরে বীর শহীদদের স্মরণ   শাবিতে ৭ম ব্যাচের পুনর্মিলনী ২২ ডিসেম্বর   চৌধুরী মইনুদ্দিনকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে ফাঁসি কার্যকরের দাবি   সহকারি শিক্ষক সমিতির সংবাদ সম্মেলন: বেতন স্কেল নির্ধারণের দাবি   শায়েস্তাগঞ্জে দুই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রচারণা তুঙ্গে   বঙ্গবন্ধু কন্যা ভাতের বদলে আলু খাওয়াবেন না : এমপি মানিক   বিশ্বম্ভরপুরের রাজাপাড়া স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তপক অর্পণ   জকিগঞ্জে শিক্ষার্থীর অসুস্থ বাবার চিকিৎসার খবর নিলেন হুইপ সেলিম   এসপি হিসেবে পদোন্নতি পেলেন সিলেটের সুনন্দা রায়   বিশ্বনাথ থেকে ৪ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার   আজ মহান বিজয় দিবস   দণ্ডিত রাগীব আলীর বন্দনায় পিপি মিসবাহ!

সিলেট বিআরটিএ রেকর্ড-কিপার তছলিম বেপরোয়া

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-২৪ ১৩:৪৫:৫৯

উত্তরপূর্ব প্রতিবেদন : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৫ ॥ সিলেট বিআরটিএ এখন সাধারণ মানুষের কাছে হয়রানির আরেক নাম। এখানে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারি চাকরির সুবাদে অবৈধ টাকা দিয়ে গড়ছেন সম্পদের পাহাড়।

অভিযোগ রয়েছে- এখানে টাকার বিনিময়ে বৈধ-অবৈধ কাজ দ্রুত সম্পাদন করা হয়। এছাড়াও সিলেটে অবাধে বর্ডার-পাস মোটসাইকেল চলছে বিআরটি অফিসের কর্মরত কর্মকর্তা আর কর্মচারীদের যোগসাজশে। মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারী নকল কাগজপত্র তৈরি করে দেন। তছলিম জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত।

এদিকে, সিলেট বিআরটিএ অফিসে সীমাহীন অনিয়ম দুর্নীতির বরপুত্র হলেন রেকর্ড কিপার তছলিম মাহমুদ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগের অন্ত নেই। আর তার সহযোগী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে সাব্বির, ইমনসহ আরো কয়েকজন।

রেকর্ড কিপার তছলিম মাহমুদ ও বিআরটিএ অফিসের হালচাল নিয়ে সিলেট মোটর মালিক গ্রুপের জেনারেল ম্যানেজার মো. দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী বাচ্চু বলেন- “আমাকে প্রায়ই মটরযান মালিকদের কাজ নিয়ে বিআরটিএ অফিসে যেতে হয়”। অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীরা সাধ্যানুযায়ী গ্রাহকদেরকে সেবা প্রদানে সচেষ্ট থাকলেও রেকর্ড-কিপার তছলিম মাহমুদের টেবিলের চিত্র সম্পূর্ণ বিপরীত। তার চাকরির মূল থিম হচ্ছে গ্রাহক হয়রানি ও অনৈতিক অবৈধ টাকা আদায়।

অভিযোগ রয়েছে- গাড়ির মালিকানা পরিবর্তন সংক্রান্ত কোন কাজ নিয়ে গেলে রেকর্ড-কিপার তছলিম মাহমুদ প্রথমেই গ্রাহককে জিজ্ঞাসা করে আর্জেন্ট না নরমাল। আর্জেন্ট মানে ১০ হাজার টাকা আর নরমাল ৫ হাজার টাকা। তার (তছলিমের) কাছে আর্জেন্ট ফি দিয়ে ফাইল জমা দিলেও জুতা ক্ষয়ে যায় তবু নাম পরিবর্তন হয় না।

অভিযোগ আছে- এই রেকর্ড-কিপার তছলিম মাহমুদ গ্রাহকদের জমাকৃত ফাইল থেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজ সরিয়ে নিয়ে প্রতিনিয়ত গ্রাহকদের পকেট কাটে। গ্রাহকরা তছলিমের এ হেন অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করলে তছলিম তার পোষা দালালদের লেলিয়ে দিয়ে শারীরিকভাবে নাজেহাল করে।

সরেজমিনে দেখা গেছে- রেকর্ড রুম একটি স্পর্শকাতর সংরক্ষিত এলাকা হওয়ার পরও ঐ রুমের মধ্যে সবসময় ৪-৫ জন দালাল অবাধে কাগজপত্র ঘাটাঘাটি করে”।

জালালাবাদ থানার নাইরপুতা গ্রামের সামছুদ্দীন অভিযোগ করেন- গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ তারিখে তিনি তার সিএনজি অটোরিকশা সিলেট-থ ১১৭৬৩৬ এর নাম পরিবর্তনের জন্য বিআরটিএ অফিসে গেলে উক্ত রেকর্ড-কিপার তছলিম মাহমুদ ১৫ দিনের মধ্যে নাম পরিবর্তন করে দেয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে ৪ হাজার টাকা নিয়ে আজ ৯ মাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত নাম পরিবর্তন হয়নি উপরন্ত তছলিম মাহমুদ আরও ৩ হাজার টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত ৩ হাজার টাকা না দেওয়ায় এখন ফাইলটি গায়েব করে ফেলেছে।

সিলেট জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় বিআরটিএ অফিসে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করলেও তছলিমের অবৈধ অনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে রহস্যজনক কারণে আজ পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। সিলেট বিআরটিএ অফিসের রেকর্ড-কিপার এই তছলিম মাহমুদের অপকর্ম সম্পর্কে বিআরটিএ অফিসের এডি এনায়েত হোসেন মন্টু বরাবরে গ্রাহকরা বার বার অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাননি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/টিএইচটি/এসবি

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত