সর্বশেষ

  বড়লেখার ডিমাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কমিটি গঠন   “হাওর অঞ্চলের শিক্ষকদের আরো দায়িত্বশীল ও সচেতন হতে হবে”   সাফি’র অলরাউন্ড নৈপূণ্যে ব্লু-বার্ডের বড় জয়   ধর্মপাশায় ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার-১   দিরাইয়ে জলমহাল দখলকে কেন্দ্র করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ: গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত-৩   আম্বরখানায় অসহায়দের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ   অসুস্থ শিক্ষকের পাশে কোম্পানীগঞ্জ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি সিলেটের নেতৃবৃন্দ   তাহিরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩২ হাজার টাকা জরিমানা আদায়   রাগীব আলীর পক্ষে ২ জনের সাফাই সাক্ষ্য প্রদান   কমলগঞ্জের পতনঊষারে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট সম্পন্ন   এই ৮ জনের কাছেই পৃথিবীর অর্ধেক সম্পদই   গোয়াইনঘাটে র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ আটক ১   হবিগঞ্জে ট্রাক থেকে ফেলে শিশু হত্যার অভিযোগ   প্রবীণ রাজনীতিবিদ, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম ইর্শ্বাদ আলীর ২৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ   জকিগঞ্জে কলেজছাত্রীকে কোপানোর ঘটনায় মায়ের মামলা   জালালাবাদে দু’পক্ষের সংঘর্ষ : আহত অর্ধশতাধিক   ছাত্রদল নেতা মহসিনের মায়ের ইন্তেকাল   হবিগঞ্জে ট্রাক্টরচাপায় স্কুলছাত্র নিহত   ‘শালা, তোদের জন্য এই অবস্থা’   মানসিক রোগীদের জন্য ক্যাপ ফাউন্ডেশনের প্রকল্প গ্রহণ

বাইক্কাবিলের পাখিপ্রেমী মিরাশ মিয়া আর নেই

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১৭ ১২:৪৬:৫৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৫ ॥ বাইক্কাবিলের পাখিপ্রেমী মিরাশ মিয়া আর নেই (ইন্না...রাজিউন)। ১৭ নভেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০টায় পাখিদের বন্ধু, রক্ষক মিরাশের দাফন হাজিপুর গ্রামের পৈত্রিক বাড়িতে সম্পন্ন হয়।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর। তা‍ঁর মৃত্যুর খবরে পাখি পর্যবেক্ষক, আলোকচিত্রী ও গবেষকদের মাঝে গভীর শোক নেমে আসে।

ক্লাইমেট-রেজিলিয়েন্ট ইকোসিস্টেমস্ অ্যান্ড লাইভলিহুডস্ (ক্রেল) প্রকল্পের বাইক্কাবিল সাইট অফিসার মো. মনিরুজ্জামান বলেন- হাওরের প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণে এবং ব্যবস্থাপনায় মিরাশ মিয়ার কর্মদক্ষতা অতুলনীয়। গ্রামের মানুষ হয়েও জীববৈচিত্র্য রক্ষণাবেক্ষণে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য।
 
তিনি আরও বলেন- মিরাশ মিয়া পরিযায়ী পাখিদের ইংরেজি ও বাংলা নাম জানতেন। শুধু তা-ই নয়, চিনতেন কোনটা কোন পাখি। বাইক্কাবিলের পাখি পর্যবেক্ষণ টাওয়ারে টেলিস্কোপ দিয়ে আগত পর্যটকদের পাখির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতেন তিনি।

বাইক্কা বিলে কোন পাখি কখন ‍আসে, কখন যায়, কোনে পাখিটি এবার নতুন এলো- এসব তথ্য সবার আগে মিলতো মিরাশ মিয়ার কাছে। কনকনে শীত উপেক্ষা করে পাখিরক্ষায় বিলের পর্যবেক্ষণ টাওয়ারেই রাতযাপন করতেন তিনি।
 
মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে ছাড়াও তিনি বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ছিলেন পরোপকারী, বিনয়ী ও প্রকৃতিপ্রেমী।

বড়গাঙ্গিনা সম্পদ ব্যবস্থাপনা সংগঠনের (আরএমও) প্রতিষ্ঠাতা সেক্রেটারি ছিলেন মিরাশ মিয়া। 

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এসবি
 

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত