সর্বশেষ

  মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে খাদিমনগর যুব কল্যাণ পরিষদের শ্রদ্ধাঞ্জলি   সিলেটে কাল থেকে শুরু হচ্ছে ‘বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎস’   রশিদিয়া দাখিল মাদরাসায় মাতৃভাষা দিবস উদযাপন   সিলেটে জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে শ্রদ্ধা জানালেন বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তারা!   ‘বাংরেজি’ ছাড়াতে হবে: শেখ হাসিনা   কমলগঞ্জে ধলাই নদীতে পড়ে শিশুর মৃত্যু   কমলগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত   নানা আয়োজনে মাতৃভাষা দিবস পালন করলো মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি   ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সিলেটে শুরু হচ্ছে ‘লন্ডন ১৯৭১’ আলোকচিত্র প্রদর্শনী   স্কলার্স একাডেমিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন   জগন্নাথপুরে জুয়ার আসর থেকে আটক ৫   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে কিশোরী ধর্ষিত : ধর্ষক আটক   ব্লগার রাজীব হত‌্যা মামলার আসামি জঙ্গি রানা রিমান্ডে   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের পুষ্পস্তবক অর্পণ   সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার   কমলগঞ্জে আইনজীবির বাড়িতে ডাকাতি : আহত ১   শাবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের পুষ্পস্তবক অর্পণ   যেভাবে গ্রেফতার হলো ব্লগার রাজীব হত্যার মূল আসামি রানা   কমলগঞ্জের ধলাই নদী থেকে স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার

শেষ বলে রংপুরের নাটকীয় জয়

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-২২ ২১:৫২:২২

ক্রীড়া ডেস্ক : রোববার, ২২ নভেম্বর ২০১৫ ॥ প্রথম ম্যাচেই জমে উঠল বিপিএল। রংপুর রাইডার্স বনাম চিটাগং ভাইকিংসের ম্যাচটা নির্ধারিত হয়েছে একেবারে শেষ বলে। মাত্র এক রান করেই সতীর্থদের আলিঙ্গনের ভিড়ে হারিয়ে গেলেন সাকলায়েন সজীব। এই একটা রানই যে শেষ বলে ২ উইকেট বাকি থাকতে জয় এনে দিয়েছে রংপুরকে। ডাগ আউট থেকে সবাই মিলে ছুটে গেলেন। গাঢ় নীল জার্সির ছোটখাটো উৎসবই যেন হয়ে গেল মাঠের মধ্যে।

ম্যাচটা চট্টগ্রামের মুখের গ্রাস থেকে বের করে এনেছে রংপুর। শেষ ছয় ওভারেও ম্যাচের পাল্লা ভালোমতোই হেলে ছিল চট্টগ্রামের দিকেই। ৩৬ বলে দরকার ৯১ রান। ওভারে ১৫-এর বেশি করে রান তোলার কঠিন সমীকরণটাই মিলিয়ে দিল রংপুর। তাতে প্রধান ভূমিকা রাখলেন মিসবাহ-উল হক। ‘টুকটুক’ নামের অপবাদ ঘুচিয়ে দেবেন এই প্রতিশ্রুতি ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই রাখলেন মিসবাহ। ৩৯ বলে চারটি ছক্কা ও তিন চারে করলেন ৬১।

তবে বড় ভূমিকা রেখেছেন আল-আমিন, থিসারা পেরেরা, এমনকি মাত্র ১৮ রান করা ড্যারেন স্যামিও। এই তিনজনের ইনিংস তিনটা না হলে মিসবাহর চেষ্টাই যে বৃথা যেত। ২৮ বলে ৩৮ করেছেন আল-আমিন, ১৭ বলে ৪৩ এসেছে পেরেরার ব্যাটে, মাত্র ৭ বলে ১৮ করেছেন স্যামি। শেষ ৬ ওভারে ঠিক ৯১ রানই তুলেছে রংপুর।

প্রথম দুই ওভারে মাত্র ৫ রান দিয়ে দুই উইকেট নেওয়া মোহাম্মদ আমির চেষ্টা করেছিলেন বটে। কিন্তু ইনিংসের ১৫তম ওভারে নিজের তৃতীয় ওভারটি করতে এসে হজম করলেন ১৭ রান। সেখান থেকেই রংপুরের ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু। পাঁচ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আবহে ফিরে আমির শেষ ওভারে আরও দুটো উইকেট নিলেও দলের পরাজয় ঠেকাতে পারেননি।

আমিরের ১৯তম ওভারটি আবারও ম্যাচে ফিরিয়ে এনেছিল চট্টগ্রামকে। রংপুরের দুই সর্বোচ্চ স্কোরার পেরেরা-মিসবাহ দুজনেই পর পর দুই বলে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। ভেঙেছিল তাদের ৩৫ বলে ৮০ রানের জুটিটাও। শেষ ওভারে দরকার ছিল ১৪। উইকেটে এসেই তলোয়ারের মতো ব্যাট চালাতে শুরু করেন স্যামি। শফিউলের করা ওই ওভারের প্রথম বলটা ডট গেলেও পরের তিন বলে নেন ১২ রান। ২ বলে ২ দরকার এমন সময় স্যামির রান আউট আরও নাটক জমিয়ে তোলে। সজীব সোজা ব্যাটে খেলে এক রান নিয়েই তাই হয়ে যান সতীর্থদের নায়ক!

ব্যাটে বলে দিনটা একদমই খারাপ গেছে দীর্ঘ ভ্রমণ শেষে গতকালই বাংলাদেশে আসা সাকিব আল হাসানের। তবে অধিনায়ক হিসেবে নিশ্চয়ই তৃপ্ত তিনি। তামিম যেমন ৫১ রান করেও তাই পরাজিতের দলেই। ম্যাচ সেরা হয়েছেন মিসবাহ।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত