সর্বশেষ

  বিশ্বনাথে সিএনজি ও রিক্সা শ্রমিকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় আহত ২০   প্রত্যাশার চেয়েও বেশি এগিয়েছে সদর উপজেলা স্পোর্টস একাডেমি: আশফাক আহমদ   মীরেরগাঁওয়ে বজ্রপাতে নিহত ৩ কিশোরের জানাজা সম্পন্ন : অনুদান প্রদান   মৌলভীবাজারে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক ৩   সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সাত্তার আর নেই: এমপি মানিকের শোক   ছাতকে আওয়ামী লীগ নেত্রীর মাতৃ বিয়োগ : এমপিসহ বিভিন্ন মহলের শোক   বিশ্বনাথের খেলাফত মজলিসের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন   বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১   শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে আজ দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ :শফিক চৌধুরী   সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু   মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে ৩ ভাইয়ের মৃত্যু   সিলেটে ছাত্রলীগ কর্মী মিন্নতের কব্জিকর্তন মামলার প্রধান আসামী শাহীনসহ গ্রেফতার ২   ছাতকে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের   কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-লিট ডিগ্রি পেলেন শেখ হাসিনা   ছাতকে পৃথক সংঘর্ষে আহত ৫০, গ্রেফতার ১   জকিগঞ্জে ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার   এতিমদের নিয়ে ক্যাডেট কলেজ ক্লাব সিলেটের ইফতার মাহফিল   শাবিতে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ওয়েবসাইট উদ্বোধন   শাবির স্বপ্নোত্থানের ঈদবস্ত্র বিতরণ   সেই কলকাতাকে হারিয়ে ফাইনালে সাকিবদের হায়দরাবাদ

লাশের সঙ্গে দেয়া হবে জীবন্ত সাপ!

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-১৮ ১৫:৩৬:১৬

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : ॥ সাপ ধরতে পারলে খুব আনন্দ পেতেন কৃষক আব্দুল হালিম। মাঝে মধ্যে তিনি সাপ ধরে খেলা করতেন। কে জানে সেই সাপই তার কাল হয়ে দাঁড়াবে। অবশেষে এই সাপের কামড়েই চলে যেতে হয়েছে পৃথিবী ছেড়ে। তবে তিনি একাই পৃথিবী ছেড়ে যাচ্ছেন না, সঙ্গে যাচ্ছে তাকে কামড় দেয়া জীবন্ত সাপও। সাপটিকে তার সঙ্গে দেয়ার ব্যবস্থা তার পরিবারের পক্ষ থেকেই করা হয়েছে।

রোববার কৃষি জমিতে কাজ করছিলেন রাজধানীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের সুভাঢ্যা ইউনিয়নের চুনকুঠিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হালিম (৪৫)। কাজ করার সময় হঠাৎ করে একটি বিষধর সাপ তাকে কামড় দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষধর সাপটিকে ধরেও ফেলেন। এরপর তিনি প্লাস্টিকের ব্যাগে সাপটি রেখে দেন। তার অবস্থা অবনতি হতে থাকলে স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোমবার সকাল ৭টায় তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার পর তার লাশটি ঢামেক হাসপাতাল মর্গে নিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু পরিবারের লোকজন সেই সাপটিকে তার লাশের ট্রলিতে করে মর্গে রেখে দিয়েছেন।

মর্গের লোকজন জানতে চায় এই ব্যাগে কি? তখন পরিবারের লোকজন জানায়, যে সাপটির কামড়ে তিনি মারা গেছেন সেই সাপটি ব্যাগে রাখা আছে। তার সঙ্গে সাপটিকেও দিয়ে দেয়া হবে। এ নিয়ে মর্গে হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়। কারণ এমনিতেই এ বিষধর সাপ একজনকে কামড়িয়েছে। সে জন্য অনেককেই ভয়ে দৌড়াতে দেখা গেছে। কেউ কেউ প্যাকেটটি খুলতে চাইলেও সাপের মড়মড়ানির শব্দে কেউ আর সাহস পাননি। এ প্রতিবেদন লেখার সময় সাপটি লাশের সঙ্গে ট্রলিতেই রাখা ছিল।

এদিকে ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা সাপটিকে দেখার জন্য মর্গ এলাকায় ভীড় জমায়। তবে মর্গের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কিত।

স্বজনরা জানিয়েছেন, এই সাপটি কৃষক আব্দুল হালিমের লাশের সঙ্গে কবরে দিয়ে দেয়া হবে। সেটা জীবন্ত হোক আর মর্গ থেকে ময়না তদন্ত করার পর হোক।

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত