সর্বশেষ

  বাণিজ্য সংগঠনের পরিচালকের সঙ্গে সিলেট চেম্বার নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়   সরকার বাঁধ নির্মাণের কাজ স্বচ্ছতার সঙ্গে করতে চায়: সুনামগঞ্জে পানি সম্পদ মন্ত্রী   মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর ৫৭তম জন্মদিন পালিত   গোয়াইনঘাটে গ্রাম আদালত সেবা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক র‌্যালি   বিয়ানীবাজারে ওপেন হাউজ ডে ও কমিউনিটি পুলিশিং অনুষ্ঠিত   দিরাইয়ে ট্রিপল হত্যা মামলার প্রধান আসামি কাওসার গ্রেফতার   রাজনগরে এনজিওকর্মী গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ২   বসন্তপুরে ৫শ ছাত্রের জন্য পাঁচ শিক্ষক!   শাবিতে প্রমিলা ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন অরোরা   জৈন্তাপুরে অজগর সাপ অাটক   মহানগর যুব জমিয়তের অভিষেক সম্পন্ন   বড়লেখায় সশস্ত্র ডাকাতি: গুলিতে গৃহকর্তা আহত   সাহেবের বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন   হবিগঞ্জে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল তিন মোটরসাইকেল আরোহীর   বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ৩০ নভেম্বর সারাদেশে হরতাল   রাজনগরে এনজিও কর্মী গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ২   বিশ্বনাথে চোরাই গরুসহ আটক ৩, ব্যবহৃত গাড়ি জব্দ   বিএনপি নেতা আব্দুল বারিকের শয্যাপাশে জেলা ও ওসমানীনগর বিএনপি   রাজনগরে এসএসএসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়   আলোর বাতিঘর এখন বন্দিশালা! : ৮০ বছরেও আলোর মুখ দেখেনি ছালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

লাশের সঙ্গে দেয়া হবে জীবন্ত সাপ!

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-১৮ ১৫:৩৬:১৬

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : ॥ সাপ ধরতে পারলে খুব আনন্দ পেতেন কৃষক আব্দুল হালিম। মাঝে মধ্যে তিনি সাপ ধরে খেলা করতেন। কে জানে সেই সাপই তার কাল হয়ে দাঁড়াবে। অবশেষে এই সাপের কামড়েই চলে যেতে হয়েছে পৃথিবী ছেড়ে। তবে তিনি একাই পৃথিবী ছেড়ে যাচ্ছেন না, সঙ্গে যাচ্ছে তাকে কামড় দেয়া জীবন্ত সাপও। সাপটিকে তার সঙ্গে দেয়ার ব্যবস্থা তার পরিবারের পক্ষ থেকেই করা হয়েছে।

রোববার কৃষি জমিতে কাজ করছিলেন রাজধানীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের সুভাঢ্যা ইউনিয়নের চুনকুঠিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হালিম (৪৫)। কাজ করার সময় হঠাৎ করে একটি বিষধর সাপ তাকে কামড় দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষধর সাপটিকে ধরেও ফেলেন। এরপর তিনি প্লাস্টিকের ব্যাগে সাপটি রেখে দেন। তার অবস্থা অবনতি হতে থাকলে স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোমবার সকাল ৭টায় তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার পর তার লাশটি ঢামেক হাসপাতাল মর্গে নিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু পরিবারের লোকজন সেই সাপটিকে তার লাশের ট্রলিতে করে মর্গে রেখে দিয়েছেন।

মর্গের লোকজন জানতে চায় এই ব্যাগে কি? তখন পরিবারের লোকজন জানায়, যে সাপটির কামড়ে তিনি মারা গেছেন সেই সাপটি ব্যাগে রাখা আছে। তার সঙ্গে সাপটিকেও দিয়ে দেয়া হবে। এ নিয়ে মর্গে হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়। কারণ এমনিতেই এ বিষধর সাপ একজনকে কামড়িয়েছে। সে জন্য অনেককেই ভয়ে দৌড়াতে দেখা গেছে। কেউ কেউ প্যাকেটটি খুলতে চাইলেও সাপের মড়মড়ানির শব্দে কেউ আর সাহস পাননি। এ প্রতিবেদন লেখার সময় সাপটি লাশের সঙ্গে ট্রলিতেই রাখা ছিল।

এদিকে ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা সাপটিকে দেখার জন্য মর্গ এলাকায় ভীড় জমায়। তবে মর্গের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কিত।

স্বজনরা জানিয়েছেন, এই সাপটি কৃষক আব্দুল হালিমের লাশের সঙ্গে কবরে দিয়ে দেয়া হবে। সেটা জীবন্ত হোক আর মর্গ থেকে ময়না তদন্ত করার পর হোক।

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত