সর্বশেষ

  শ্রমিক সংগঠনে বিভক্তি: এবার শ্রমিকলীগ নেতা এজাজকে বহিষ্কারের দাবি   চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন ড. মোমেন   ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাচন: ভোটারদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি কী রাখতে পারবেন প্রার্থীরা?   আমেরিকা আমাদের ট্যাক্সেও চলে : শেখ হাসিনা   ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ বিভাগের যাত্রা শুরু   স্কুলছাত্রীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ’ : আটক ১   সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক সংস্কারের দাবিতে নিসচা’র মানববন্ধন   ধর্মপাশায় তলিয়ে গেছে ২৫০ একর জমির ফসল   হজরত রকীব শাহ (রহ.)-এর ৫১তম বার্ষিক ওরস শরিফ ২৮ ফেব্রুয়ারি শুরু   তাহিরপুরে ব্র্যাকের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত   খুব সস্তা ছিল তাই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে : সিলেটে অর্থমন্ত্রী   ওসমানীনগরে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাত   কক্সবাজারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫   বাঁধ নির্মাণ হয়নি : হুমকির মুখে সমসার হাওর   ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা মিরাজ   বায়োস্কোপের নেশায় আমায় ছাড়ে না...   যুক্তরাজ্যে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের আন্দোলনে নব্বই শতাংশ লোকই ছিলেন সিলেটের   সিলেট ফিরে বদরুলের শাস্তি চাইলেন খাদিজা   সিলেটের উন্নয়নে সহায়তা দেবে ভারত   শাহ আবদুল করিম লোক উৎসব ৩ মার্চ

লাশের সঙ্গে দেয়া হবে জীবন্ত সাপ!

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-১৮ ১৫:৩৬:১৬

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : ॥ সাপ ধরতে পারলে খুব আনন্দ পেতেন কৃষক আব্দুল হালিম। মাঝে মধ্যে তিনি সাপ ধরে খেলা করতেন। কে জানে সেই সাপই তার কাল হয়ে দাঁড়াবে। অবশেষে এই সাপের কামড়েই চলে যেতে হয়েছে পৃথিবী ছেড়ে। তবে তিনি একাই পৃথিবী ছেড়ে যাচ্ছেন না, সঙ্গে যাচ্ছে তাকে কামড় দেয়া জীবন্ত সাপও। সাপটিকে তার সঙ্গে দেয়ার ব্যবস্থা তার পরিবারের পক্ষ থেকেই করা হয়েছে।

রোববার কৃষি জমিতে কাজ করছিলেন রাজধানীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের সুভাঢ্যা ইউনিয়নের চুনকুঠিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হালিম (৪৫)। কাজ করার সময় হঠাৎ করে একটি বিষধর সাপ তাকে কামড় দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষধর সাপটিকে ধরেও ফেলেন। এরপর তিনি প্লাস্টিকের ব্যাগে সাপটি রেখে দেন। তার অবস্থা অবনতি হতে থাকলে স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোমবার সকাল ৭টায় তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার পর তার লাশটি ঢামেক হাসপাতাল মর্গে নিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু পরিবারের লোকজন সেই সাপটিকে তার লাশের ট্রলিতে করে মর্গে রেখে দিয়েছেন।

মর্গের লোকজন জানতে চায় এই ব্যাগে কি? তখন পরিবারের লোকজন জানায়, যে সাপটির কামড়ে তিনি মারা গেছেন সেই সাপটি ব্যাগে রাখা আছে। তার সঙ্গে সাপটিকেও দিয়ে দেয়া হবে। এ নিয়ে মর্গে হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়। কারণ এমনিতেই এ বিষধর সাপ একজনকে কামড়িয়েছে। সে জন্য অনেককেই ভয়ে দৌড়াতে দেখা গেছে। কেউ কেউ প্যাকেটটি খুলতে চাইলেও সাপের মড়মড়ানির শব্দে কেউ আর সাহস পাননি। এ প্রতিবেদন লেখার সময় সাপটি লাশের সঙ্গে ট্রলিতেই রাখা ছিল।

এদিকে ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা সাপটিকে দেখার জন্য মর্গ এলাকায় ভীড় জমায়। তবে মর্গের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কিত।

স্বজনরা জানিয়েছেন, এই সাপটি কৃষক আব্দুল হালিমের লাশের সঙ্গে কবরে দিয়ে দেয়া হবে। সেটা জীবন্ত হোক আর মর্গ থেকে ময়না তদন্ত করার পর হোক।

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত