সর্বশেষ

  প্রকৃতি ও পরিবেশের বিপন্নতাই এখন সিলেটের প্রধান সমস্যা   রোহিঙ্গা ইস্যুতে ট্রাম্পের কাছে প্রত্যাশা নেই : শেখ হাসিনা   সিলেট থেকে ৪ সাবরেজিস্ট্রার 'আউট', 'ইন' ৩ জন   যে অতীত সু চি মুছে ফেলতে চান   বাংলা ভাষায় বিজ্ঞান চর্চার প্রসার বাড়াবো : রাইসা সালসাবিল   জাতির উদ্দেশে ভাষণে যা বললেন সু চি   ট্রাম্পের সাথে হাসিনার কয়েক মিনিট কী কথা হয়েছিল?   রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধে রাজার গাঁও মাদরাসা ও হাটখোলা ইউপি তালামীযের মানববন্ধন   মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে গোয়াইনঘাটে থাকবে না : মনিরুজ্জামান   রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে ইমাম, মুয়াজ্জিন ও মুসল্ল­ী পরিষদের মানববন্ধন   মাধবপুরে উপবৃত্তির টাকা উত্তোলনে ভোগান্তি : শিক্ষার্থীদের টাকা গচ্ছা   ‘যাচাই করে’ রোহিঙ্গাদের ফেরাতে রাজি সু চি   বাসর হলো না তাহিরপুরে সোয়েবের : হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ উদ্ধার   কমলগঞ্জের জালালীয়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি : গুলিবিদ্ধসহ আহত ৫   দু-সপ্তাহেও চালু হয়নি শাবির ডাইনিং : প্রভোস্টদের গাফিলতির অভিযোগ   শেখ হাসিনার সাথে ট্রাম্পসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দের আলোচনা : প্রশংসিত বাংলাদেশ   মিয়ানমার ভীত নয়, অভিযান চলবে : সু চি   যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ নবীগঞ্জের হেলাল চৌধুরী মারা গেছেন   ৩ নভেম্বর সিলেট স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী খেলা: মুখোমুখি সিলেট সিক্সার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটস   বাহুবলে হাওরবাসীর মনে আনন্দ দিতে ‘উপজেলা চেয়ারম্যান নৌকা বাইচ’ অনুষ্ঠিত

লাশের সঙ্গে দেয়া হবে জীবন্ত সাপ!

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-১৮ ১৫:৩৬:১৬

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : ॥ সাপ ধরতে পারলে খুব আনন্দ পেতেন কৃষক আব্দুল হালিম। মাঝে মধ্যে তিনি সাপ ধরে খেলা করতেন। কে জানে সেই সাপই তার কাল হয়ে দাঁড়াবে। অবশেষে এই সাপের কামড়েই চলে যেতে হয়েছে পৃথিবী ছেড়ে। তবে তিনি একাই পৃথিবী ছেড়ে যাচ্ছেন না, সঙ্গে যাচ্ছে তাকে কামড় দেয়া জীবন্ত সাপও। সাপটিকে তার সঙ্গে দেয়ার ব্যবস্থা তার পরিবারের পক্ষ থেকেই করা হয়েছে।

রোববার কৃষি জমিতে কাজ করছিলেন রাজধানীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের সুভাঢ্যা ইউনিয়নের চুনকুঠিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হালিম (৪৫)। কাজ করার সময় হঠাৎ করে একটি বিষধর সাপ তাকে কামড় দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষধর সাপটিকে ধরেও ফেলেন। এরপর তিনি প্লাস্টিকের ব্যাগে সাপটি রেখে দেন। তার অবস্থা অবনতি হতে থাকলে স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোমবার সকাল ৭টায় তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মারা যাওয়ার পর তার লাশটি ঢামেক হাসপাতাল মর্গে নিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু পরিবারের লোকজন সেই সাপটিকে তার লাশের ট্রলিতে করে মর্গে রেখে দিয়েছেন।

মর্গের লোকজন জানতে চায় এই ব্যাগে কি? তখন পরিবারের লোকজন জানায়, যে সাপটির কামড়ে তিনি মারা গেছেন সেই সাপটি ব্যাগে রাখা আছে। তার সঙ্গে সাপটিকেও দিয়ে দেয়া হবে। এ নিয়ে মর্গে হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়। কারণ এমনিতেই এ বিষধর সাপ একজনকে কামড়িয়েছে। সে জন্য অনেককেই ভয়ে দৌড়াতে দেখা গেছে। কেউ কেউ প্যাকেটটি খুলতে চাইলেও সাপের মড়মড়ানির শব্দে কেউ আর সাহস পাননি। এ প্রতিবেদন লেখার সময় সাপটি লাশের সঙ্গে ট্রলিতেই রাখা ছিল।

এদিকে ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা সাপটিকে দেখার জন্য মর্গ এলাকায় ভীড় জমায়। তবে মর্গের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কিত।

স্বজনরা জানিয়েছেন, এই সাপটি কৃষক আব্দুল হালিমের লাশের সঙ্গে কবরে দিয়ে দেয়া হবে। সেটা জীবন্ত হোক আর মর্গ থেকে ময়না তদন্ত করার পর হোক।

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত