সর্বশেষ

  ঈদে রাস্তায় থাকবে বিআরটিসির ৯০০ বাস   দিরাইয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ   টস জিতে ফিল্ডিংয়ে টাইগাররা   সিলেট বিভাগকে বাল্যবিবাহমুক্ত ঘোষণা   দীর্ঘ ১৭ বছর পর এফডিসিতে ফিরছেন শাবানা?   শ্রীমঙ্গলে উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন   বিশ্বনাথে স্বামীর হাতে খুন হলেন স্ত্রী   অভিযোগের পাহাড় শিক্ষার্থীদের : হল থেকে বিতাড়িত শাবির সেই ‘অপরাধ সম্রাট’   কুসিক মেয়র সাক্কুর স্থায়ী জামিন   গোয়াইনঘাটের রুস্তমপুর ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা   শিক্ষক শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা   অর্ধেক বৃত্তে মৌলভীবাজার শহীদ মিনার!   যুক্তরাজ্যে আরও সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে   মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য গড়ার খাবার   আজ মাশরাফি চোখ রাখছেন জয়ে   জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি বাড়ি ঘেরাও   সিলেটে বজ্রপাতে শ্যালক-দুলাভাইসহ নিহত ৩   মৌলভীবাজারের মোস্তফাপুর ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা   চরগাঁওয়ে রাস্তা উদ্বোধন করলেন এমপি কেয়া চৌধুরী   রাজনগরে ধর্ষক ও নারী নির্যাতনকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

দলীয়ভাবেই স্থানীয় নির্বাচন, সংসদে বিল পাস

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-২২ ২০:৪০:৫৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : রোববার, ২২ নভেম্বর ২০১৫ ॥ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের নির্বাচনে বিধান যুক্ত করে সংসদে স্থানীয় সরকার সম্পর্কিত পৃথক তিনটি বিল পাস হয়েছে।

বিলগুলো হলো, স্থানীয় সরকার (সিটি কপোরেশন) সংশোধন আইন ২০১৫, স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) সংশোধন আইন ২০১৫, স্থানীয় সরকার (উপজেলা পরিষদ) সংশোধন আইন ২০১৫।

রোববার রাতে সংসদে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বিলগুলো পাসের সুপারিশ করলে সেগুলো সংসদীয় কমিটির সুপারিশ আকারে পাস হয়। তার আগে বিলগুলোর ওপর জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে প্রেরণ এবং কিছু সংশোধনী প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।
 
সংশোধিত আইনে সিটি করপোরেশনের মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য কোন ব্যক্তিকে কোন রাজনৈতিক দল কর্তৃক মনোনিত বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে হবে মর্মে বিধান করা হয়েছে। তবে ঐ রাজনৈতিক দলকেও নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল হতে হবে।

তার আগে সিটি করপোরেশন, ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ এ রাজনৈতিক দল কর্তৃক প্রার্থী মনোনয়ের বিধানের প্রস্তাব সম্বলিত সংশোধনী বিল গত ১১ নভেম্বর সংসদে উত্থাপিত  হয়। গত বুধবার  সংসদীয় কমিটি শুধু মেয়র ও চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়নের বিধান রেখে বিলগুলো চূড়ান্ত করে সংসদে রিপোর্ট দেয়।
 
বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের পক্ষ হতে সরাসরি অংশগ্রহণে স্থানীয় সরকার নির্বাচন সম্পন্ন করার দাবি উত্থাপিত হয়ে আসছে। জনগণের গণতান্ত্রিক এই প্রত্যাশার প্রতি গুরুত্ব প্রদান করে রাজনৈতিক দলসমুহের সরাসরি অংশগ্রহণের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে দলীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থীরা নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ পাবেন। এতে প্রার্থীদের দায়বদ্ধতা সৃষ্টি হবে এবং যথাযথভাবে রাজনৈতিক অঙ্গিকার পালনের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এমওআর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত