সর্বশেষ

  ফুলতলীতে পদদলিত হয়ে নিহত দু’জনের পরিচয় সনাক্ত: থানায় অপমৃত্যু মামলা   “২০১০ সালের শিক্ষানীতি পাশ কাটিয়ে যাওয়া হচ্ছে”   দেবপুর রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দিরে ১৬ প্রহরব্যাপী হরিনাম সংকীর্ত্তণ ১৯ জানুয়ারি শুরু   শাবিতে প্রজেক্ট ফেয়ার ২৬ জানুয়ারি   শাবিতে ৩ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলন সম্পন্ন   মোবাইল নিয়ে দেশের বাজারে টিসিএল   বিকাশে প্রতারক চক্র : ‘বস’ নাজমুল শোভনকে খুঁজছে র‌্যাব-৯   টাঙ্গাইল-৩’র এমপি রানাসহ ৪ ভাই আ’লীগ থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ   দক্ষিণ সুরমায় র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১   জকিগঞ্জে কলেজছাত্রীর ওপর ‘হামলাকারীর’ ভাই আটক   এত প্রাপ্তির পরও হারলো বাংলাদেশ   মাঘের শীতে কাবু সিলেটের জনজীবন   নারায়ণগঞ্জে ৭ খুন : নূর হোসেনসহ ২৬ আসামির ফাঁসির রায়   নারায়ণগঞ্জের ৭ খুন মামলার রায় আজ   সিলেট সদর উপজেলা ছাত্রদল নেতা জুনায়েদের বিদেশ গমণ উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা   নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিবের সাথে জেলা পরিষেদের সদস্য আলেয়ার সৌজন্য সাক্ষাৎ   প্রবাসী সাংবাদিকদের সাথে কাউন্সিলর শামীমের মতবিনিময়   ছাতকে বিল-হাওরে বোরো ধানের চারা রোপণের ধূম   কানাইঘাটে সালিশ বৈঠকে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে : আওয়ামী লীগ নেতাসহ ১০ আহত   দিনাজপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার মুক্তিযোদ্ধাদের ‘‘বীর নিবাস’’ হস্তান্তর

শুভ জন্মদিন হুমায়ূন আহমেদ

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১৩ ০২:৩১:২১

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৫ ॥ নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ। সহজ ভাষায় লেখনির জাদুতে পাঠক হৃদয়ে তৈরি করেছেন এক আলাদা স্থান। বলা হয়, বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় লেখক তিনি।

১৩ নভেম্বর (শুক্রবার) আধুনিক বাংলা সাহিত্যের এ পথিকৃতের জন্মদিন। ১৯৪৮ সালের এ দিনে পৃথিবীতে এসেছিলেন সাহিত্যাকাশের এ উজ্জ্বল নক্ষত্র।
 
ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, নাট্যকার ও গীতিকার হিসেবে হুমায়ূন আহমেদের আসল পরিচিতি। ভিন্নধর্মী নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাণ করেও মিডিয়াতে একটি নিজস্ব ধারা উন্মোচন করেছেন। যা আজও দর্শকদের কাছে বিশেষ আকর্ষণের।

পেশাজীবনে তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক। পরবর্তীতে সাহিত্যের প্রতি মনোযোগ দিতে অধ্যাপনা ছেড়ে দেন।
 
দুই শতাধিক গ্রন্থের লেখক হুমায়ূন আহমেদের বিশেষ উপন্যাসগুলোর মধ্যে রয়েছে নন্দিত নরকে, মধ্যাহ্ন, জোছনা ও জননীর গল্প, মাতাল হাওয়া ইত্যাদি।

তার সৃষ্ট জনপ্রিয় চরিত্রগুলোর মধ্যে হিমু ও মিসির আলী অন্যতম।

হুমায়ুন আহমেদ নির্মিত উল্লেখযোগ্য ও জনপ্রিয় চলচ্চিত্র হচ্ছে দুই দুয়ারী, শ্রাবণ মেঘের দিন, দারুচিনি দ্বীপ, ঘেঁটুপুত্র কমলা ইত্যাদি।

২০১২ সালে নির্মিত ঘেঁটুপুত্র কমলা ছিলো হুমায়ূন আহমেদের পরিচালিত শেষ চলচ্চিত্র। দীর্ঘ নয় মাস মলাশয়ের ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে চিকিৎসাধীন  অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯ জুলাই নিউ ইয়র্কের বেলেভ্যু হসপিটালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

হুমায়ূন আহমেদ তার সৃষ্টির মাধ্যমে পাঠক ও দর্শক মনে যে স্থান তৈরি করেছেন, তা অভিন্ন ও অপরিবর্তনীয়। তিনি আজও বেঁচে রয়েছেন তার লেখা ও তার সৃষ্ট চরিত্রগুলোর মধ্যে।

জন্মদিনে প্রিয় লেখকের জন্য রইলো শ্রদ্ধাঞ্জলি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত