সর্বশেষ

  হাওরবাসীর দুর্যোগ নিয়ে তামাশা করবেন না   “আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমার কোন চাওয়া পাওয়া নেই”   গোলাপগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু   রশিদিয়া দাখিল মাদরাসায় বিশ্ব বই দিবস উদযাপন   এনইইউবিতে ‘ক্যারিয়ার ক্লাব’র যাত্রা শুরু   ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা   জামালগঞ্জে এক কিশোরীর দুই জন্ম নিবন্ধন: বাল্যবিবাহ সম্পন্ন, এলাকায় তোলপাড়   বিশ্বনাথে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৩২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে র‌্যালী   কাউন্সিলর আফতাবকে ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সংর্বধনা   সব চেষ্টা ব্যর্থ, তলিয়ে গেল শনি: হাওরপাড়ে চলছে কৃষকের আহাজারি   হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার পাবে মাসে ৩০ কেজি চাল ও নগদ অর্থ   মহাজনী ও এনজিও ঋনের চাপ: সব হারিয়ে দিশেহারা হাওরবাসী   বাবাকে ছাপিয়ে যেতে চান টাইগার শ্রফ   বাজারে আসুসের তিন জেনফোন   সুনামগঞ্জে শনির হাওরের বাঁধে ৩টি স্থানে ভাঙন   মহামতি লেনিনের জন্মবার্ষিকীতে সিলেটে লাল পতাকা মিছিল   ফ্রান্সে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে   লাখাইয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার   আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন তারেকের শাশুড়ি সিলেটের সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানু   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি হয়েছে : সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী

আইএস উত্থানে বুশ দায়ী : ওবামা

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১৫ ২২:০৫:০৮

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : রোববার, ১৫ নভেম্বর ২০১৫ ॥ আইএসের উত্থানের জন্য জর্জ ডব্লিউ বুশকে  দায়ী করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি অভিযোগ করেন  বুশের আমলেই ইরাকে আক্রমণের ফলে ‘অনিচ্ছাকৃতভাবে’ আইএসের উত্থান ঘটেছে। ভাইস নিউজকে দেয়া এক বক্তব্যে এমন অভিযোগ  করলেন ওবামা।  খবর ব্রিটিশ ইন্ডিপেন্ডেন্টের।

আমেরিকার ওপর প্রভাব ফেলছে এমন বিষয় নিয়ে আলোচনাকালে ওবামা বুশের ওই কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন।

আইএসের উত্থানের পেছনের কারণ হিসেবে ওবামা বলেন, ‘দুইটি বিষয়: একটা হল ইরাকে আল-কায়েদার কর্মকাণ্ডের প্রত্যক্ষ ফল আইএস, যা আমাদের আক্রমণের কারণে বেড়ে উঠেছে। এটা অনিচ্ছাকৃত পরিণতির উদাহরণ। গুলি করার আগে ভাবতে হবে আমরা কেন তা করছি।

বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ৬০টি দেশ নিয়ে জোট করেছি। আমরা ধীরে ধীরে ইরাক থেকে আইএসকে হটিয়ে দেব। আমি আত্মবিশ্বাসী যে এটা ঘটবেই।’

এ সময় তিনি ‘সুন্নিদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা’ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিশেষত লিবিয়া ও ইয়েমেনে সুন্নি মুসলিমদের সমস্যা নিয়ে কথা বলেন তিনি।

ওই অঞ্চলের লোকদের আইএসের মতো সংগঠনে যোগ দেয়ার ব্যাপারে ওবামা বলেন, ‘যেখানে তরুণরা পড়ালেখা ও ভবিষ্যতের লক্ষ্য নিয়ে বড় হওয়ার সুযোগ পায় না। সেখানে তাদের ভালো ফল, ক্ষমতা, সম্মান পাওয়ার একটাই পথ থাকে তা হল যোদ্ধা হওয়া। এ কারণেই ওই সংগঠনগুলো সেখানে বিস্তার লাভ করতে পারে। তাই আমাকে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে দিন।’

আলোচনাকালে তিনি আইএস ছাড়াও জলবায়ু পরিবর্তন, ইরান, অর্থনীতি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন।

তরুণ প্রজন্মকে জলবায়ু পরিবর্তন, অর্থনীতি, যুদ্ধ ও শান্তি নিয়ে ভাবতে হবে বলেও উল্লেখ করেন ওবামা। এমনকি গাঁজার ভয়াবহতা নিয়ে ভাবার কথা বলেন তিনি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত