সর্বশেষ

  ধর্মপাশায় জাতীয় বিদ্যুৎ সপ্তাহ পালিত   সিসিক’র মোবাইল কোর্ট : ১ হাজার স্কয়ার ফুটের বিলবোর্ডের প্যানাফ্লেক্স জব্ধ ও বাজেয়াপ্ত   জাতীয় বিদ্যুৎ সপ্তাহ উপলক্ষে শায়েস্তাগঞ্জে র‌্যালি ও আলোচনা সভা   ফেঞ্চুগঞ্জে সংখ্যালঘুদের ভূমি দখল এবং হয়রানি বন্ধ করতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা   টেকনাফ থেকে দুই জেলেকে নিয়ে গেছে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী   আরব আমিরাত কেন্দ্রীয় বিএনপির নবগঠিত কমিটির সভাপতির সাথে শুভেচ্ছা বিনিমিয়   সালমান শাহ মৃত্যুর রহস্যের তদন্ত করবে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন   খুলনা টাইটানসকে হারিয়ে ফাইনালে রাজশাহী কিংস   যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগ নেতা ওজি উদ্দিন মারুফকে মহানগর ছাত্রলীগের সংবর্ধনা   পনিটুলাস্থ পল্লবী সমাজ কল্যাণ সংস্থার কার্যালয় উদ্বোধন   বিশ্বনাথে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রদল কর্মীদের হামলা: নগদ টাকাসহ মালামাল লুটপাঠ   কাল থেকে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ সড়কে সিএনজি অটোরিকশা চলাচল বন্ধ   রোহিঙ্গা হত্যা-নির্যাতনের প্রতিবাদে সম্মিলিত নাট্য পরিষদের মানববন্ধন কাল   সিলেটে জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ পালন   দিরাইয়ে আলোচনার ঝড়: আবারো দল বদলাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর!   রঞ্জিত সরকারের মাতার মৃত্যুতে মহানগর আওয়ামী লীগের শোক   জৈন্তাপুরে পটকা ট্র্যাজিডি: নিহত ৫ জনের জানাজা সম্পন্ন, রাতে আরো ১ জনের জানাজা   কুলাউড়া প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের উদ্বোধন   ছালিয়ায় মিনি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন   মাধবপুরে কুখ্যাত শাজান্যা ডাকাত গ্রেফতার

জিওনা চানার ৩৯ স্ত্রী, ৯৪ সন্তান, ৩৩ নাতি-নাতনী!

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-০৮ ০১:৪৯:৫৪

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : রোববার, ০৮ নভেম্বর ২০১৫ ॥ একজন নয়, দু’জন নয়, নয় ১০জন। ৩৯ জন স্ত্রীর গর্বিত স্বামী তিনি! ৩৯ জন পতিপ্রাণা স্ত্রীর গর্ভজাত পুত্রকন্যার সংখ্যা ৯৪ জন। আর নাতিনাতনী ৩৩ জন। একুনে ১৬৭ জনের বৃহ এক (নাকি দুনিয়ার বৃহত্তম?) পরিবার তার। মজার ব্যাপার সবাইকে নিয়ে একই ছাদের নিচে সুখে শান্তিতে বাস করছেন বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মিজোরামের এক প্রত্যন্ত পার্বত্য গ্রামের বাসিন্দা জিওনা চানা (Ziona Chana)। পত্রিকার শিরোনাম: ‘Indian man has 39 wives, 94 children and 33 grandchildren all living under the SAME roof.’

জিওনা চানার ১৬৭ সদস্যের পরিবারটি থাকে চারতলা এক দালানে ১০০টি কক্ষে। এতোগুলো বিয়ে করার পরও  কিন্তু ৬৬ বছর বয়সেও বিয়ের খায়েশ মেটেনি তার। তিনি আরো বেশি বেশি বিয়ে করে নিজের পরিবারটিকে আরো বড় করতে চান। এখনো প্রতিবার স্ত্রীদের মধ্য থেকে ৭ থেকে ৮ জনকে থাকেন তিনি। এভাবে পালাক্রমে অন্য ৭/৮জন স্ত্রী তার সঙ্গে থাকেন। একবার তিনি একবছরে ১০জন নারীর পাণিগ্রহণ করেছিলেন।তার নিজের ভাষায়, ‘এমনকি আজকও আমি আমি আমার পরিবারটাকে আরো বড় করতে প্রস্তুত, আর যতো বেশি সম্ভব বিয়ের পিঁড়িতে বসতে আগ্রহী।’  

এই বৃহৎ পরিবারটির প্রতিদিনকার খাবারের চাহিদাও চোখ কপালে তোলার মতো --–২০০ পাউন্ড চাল এবং ১৩০ পাউন্ড আলু। সব খাবারই একটা রসুইঘরে রান্না হয়। পতিব্রতা স্ত্রীরা সবাই মিলেমিশে খাবার রান্না করেন। আর ধোয়া-মোছা ও বাড়িঘর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার কাজটা করে তার কন্যা ও নাতনীরা। আর বাড়ির বাইরের কৃষিকাজ, গরু-মহিষ ও গবাদিপশুর দেখভাল-লালন-পালন করে নাতি ও পুত্ররা।

জিওনা চানার গর্বিত উক্তি: ‘যত্ন-আত্তি ও দেখভাল করার জন্য আমার আছে এতো-এতো লোক; আর সে-কারণে আমি নিজেকে একজন ভাগ্যবান বলেই মনে করি আমি।’.

জিওনা চানা খিস্টধর্মের অনুসারী। স্থানীয়ভাবে তারা ‘চানা’ গোত্রের মানুষ। এই গোত্রটি বহুবিবাহকে অনুমোদন এবং উৎসাহিত করে থাকে।.

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত