সর্বশেষ

  বড়লেখার ডিমাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কমিটি গঠন   “হাওর অঞ্চলের শিক্ষকদের আরো দায়িত্বশীল ও সচেতন হতে হবে”   সাফি’র অলরাউন্ড নৈপূণ্যে ব্লু-বার্ডের বড় জয়   ধর্মপাশায় ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার-১   দিরাইয়ে জলমহাল দখলকে কেন্দ্র করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ: গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত-৩   আম্বরখানায় অসহায়দের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ   অসুস্থ শিক্ষকের পাশে কোম্পানীগঞ্জ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি সিলেটের নেতৃবৃন্দ   তাহিরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩২ হাজার টাকা জরিমানা আদায়   রাগীব আলীর পক্ষে ২ জনের সাফাই সাক্ষ্য প্রদান   কমলগঞ্জের পতনঊষারে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট সম্পন্ন   এই ৮ জনের কাছেই পৃথিবীর অর্ধেক সম্পদই   গোয়াইনঘাটে র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ আটক ১   হবিগঞ্জে ট্রাক থেকে ফেলে শিশু হত্যার অভিযোগ   প্রবীণ রাজনীতিবিদ, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম ইর্শ্বাদ আলীর ২৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ   জকিগঞ্জে কলেজছাত্রীকে কোপানোর ঘটনায় মায়ের মামলা   জালালাবাদে দু’পক্ষের সংঘর্ষ : আহত অর্ধশতাধিক   ছাত্রদল নেতা মহসিনের মায়ের ইন্তেকাল   হবিগঞ্জে ট্রাক্টরচাপায় স্কুলছাত্র নিহত   ‘শালা, তোদের জন্য এই অবস্থা’   মানসিক রোগীদের জন্য ক্যাপ ফাউন্ডেশনের প্রকল্প গ্রহণ

জিওনা চানার ৩৯ স্ত্রী, ৯৪ সন্তান, ৩৩ নাতি-নাতনী!

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-০৮ ০১:৪৯:৫৪

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : রোববার, ০৮ নভেম্বর ২০১৫ ॥ একজন নয়, দু’জন নয়, নয় ১০জন। ৩৯ জন স্ত্রীর গর্বিত স্বামী তিনি! ৩৯ জন পতিপ্রাণা স্ত্রীর গর্ভজাত পুত্রকন্যার সংখ্যা ৯৪ জন। আর নাতিনাতনী ৩৩ জন। একুনে ১৬৭ জনের বৃহ এক (নাকি দুনিয়ার বৃহত্তম?) পরিবার তার। মজার ব্যাপার সবাইকে নিয়ে একই ছাদের নিচে সুখে শান্তিতে বাস করছেন বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মিজোরামের এক প্রত্যন্ত পার্বত্য গ্রামের বাসিন্দা জিওনা চানা (Ziona Chana)। পত্রিকার শিরোনাম: ‘Indian man has 39 wives, 94 children and 33 grandchildren all living under the SAME roof.’

জিওনা চানার ১৬৭ সদস্যের পরিবারটি থাকে চারতলা এক দালানে ১০০টি কক্ষে। এতোগুলো বিয়ে করার পরও  কিন্তু ৬৬ বছর বয়সেও বিয়ের খায়েশ মেটেনি তার। তিনি আরো বেশি বেশি বিয়ে করে নিজের পরিবারটিকে আরো বড় করতে চান। এখনো প্রতিবার স্ত্রীদের মধ্য থেকে ৭ থেকে ৮ জনকে থাকেন তিনি। এভাবে পালাক্রমে অন্য ৭/৮জন স্ত্রী তার সঙ্গে থাকেন। একবার তিনি একবছরে ১০জন নারীর পাণিগ্রহণ করেছিলেন।তার নিজের ভাষায়, ‘এমনকি আজকও আমি আমি আমার পরিবারটাকে আরো বড় করতে প্রস্তুত, আর যতো বেশি সম্ভব বিয়ের পিঁড়িতে বসতে আগ্রহী।’  

এই বৃহৎ পরিবারটির প্রতিদিনকার খাবারের চাহিদাও চোখ কপালে তোলার মতো --–২০০ পাউন্ড চাল এবং ১৩০ পাউন্ড আলু। সব খাবারই একটা রসুইঘরে রান্না হয়। পতিব্রতা স্ত্রীরা সবাই মিলেমিশে খাবার রান্না করেন। আর ধোয়া-মোছা ও বাড়িঘর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার কাজটা করে তার কন্যা ও নাতনীরা। আর বাড়ির বাইরের কৃষিকাজ, গরু-মহিষ ও গবাদিপশুর দেখভাল-লালন-পালন করে নাতি ও পুত্ররা।

জিওনা চানার গর্বিত উক্তি: ‘যত্ন-আত্তি ও দেখভাল করার জন্য আমার আছে এতো-এতো লোক; আর সে-কারণে আমি নিজেকে একজন ভাগ্যবান বলেই মনে করি আমি।’.

জিওনা চানা খিস্টধর্মের অনুসারী। স্থানীয়ভাবে তারা ‘চানা’ গোত্রের মানুষ। এই গোত্রটি বহুবিবাহকে অনুমোদন এবং উৎসাহিত করে থাকে।.

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত