সর্বশেষ

  শ্রমিক সংগঠনে বিভক্তি: এবার শ্রমিকলীগ নেতা এজাজকে বহিষ্কারের দাবি   চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন ড. মোমেন   ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাচন: ভোটারদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি কী রাখতে পারবেন প্রার্থীরা?   আমেরিকা আমাদের ট্যাক্সেও চলে : শেখ হাসিনা   ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ বিভাগের যাত্রা শুরু   স্কুলছাত্রীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ’ : আটক ১   সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক সংস্কারের দাবিতে নিসচা’র মানববন্ধন   ধর্মপাশায় তলিয়ে গেছে ২৫০ একর জমির ফসল   হজরত রকীব শাহ (রহ.)-এর ৫১তম বার্ষিক ওরস শরিফ ২৮ ফেব্রুয়ারি শুরু   তাহিরপুরে ব্র্যাকের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত   খুব সস্তা ছিল তাই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে : সিলেটে অর্থমন্ত্রী   ওসমানীনগরে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে গৃহবধূকে ছুরিকাঘাত   কক্সবাজারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫   বাঁধ নির্মাণ হয়নি : হুমকির মুখে সমসার হাওর   ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা মিরাজ   বায়োস্কোপের নেশায় আমায় ছাড়ে না...   যুক্তরাজ্যে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের আন্দোলনে নব্বই শতাংশ লোকই ছিলেন সিলেটের   সিলেট ফিরে বদরুলের শাস্তি চাইলেন খাদিজা   সিলেটের উন্নয়নে সহায়তা দেবে ভারত   শাহ আবদুল করিম লোক উৎসব ৩ মার্চ

অগ্ন্যাশয় ক্যানসার প্রতিরোধে করলা

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-২১ ১৪:২০:৩৪

স্বাস্থ্য ডেস্ক : শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৫ ॥ ভারতীয় উপমহাদেশে করলা অত্যন্ত পরিচিত একটি সবজি। এশিয়‍া, পূর্ব আফ্রিকা, দক্ষিণ আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে এ সবজিটি জন্মে বেশি। তিতা স্বাদের করলার নানা ভেষজ ও ওষুধি গুণাগুণ রয়েছে।

বৈজ্ঞানিক গবেষণায় দেখা যায়- করলা ডায়াবেটিস ও কয়েক প্রকার ক্যানসারের চিকিৎসায় কার্যকরী। করলা ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। এন্টিভাইরাল এ সবজিটি ফ্যাট কমাতেও কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

ধারণা অনুযায়ী, ফল ও সবজির মধ্যে করলা সবচেয়ে তিতা। এটি পেটে ব্যথা, জ্বর, চর্মরোগ ও পোড়া ক্ষত সারিয়ে তুলতে প্রাকৃতিক নিরাময়ক হিসেবে বহুকাল ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

অনেকেই জানেন- অগ্ন্যাশয়ের ক্যানসার অন্যান্য ক্যানসারের তুলনায় অনেক দ্রুত বাড়ে। কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায়, অগ্ন্যাশয়ে ক্যান্সারের ওপর করলার ওষুধি প্রভাব পরীক্ষা করে দেখা যায়- করলার রস ক্যানসার সেল তৈরি হওয়া বন্ধ করে ও নিষ্ক্রিয় করে দেয়।

কোনো প্রকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই এটি বেড়ে ওঠা টিউমারকে ৬০ শতাংশ হারে কমায়।

সহজলভ্য ও উপকারী হওয়ায় করলা প্রায়শই ডায়েট মেন্যুতে থাকে। তবে সুস্থ থাকতে ঠিক কী পরিমাণ করলা খাবেন তা জেনে নেওয়া ভালো। একজন ব্যক্তির প্রতিদিন দুই আউন্স বা ৫৭ গ্রামের বেশি খাওয়া উচিত নয়। বেশি খেলে পেটে ব্যথা বা ডায়রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, গর্ভবতী নারীদের করলা খাওয়া ঠিক নয়। এটি গর্ভপাতের কারণ হতে পারে। (তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।)

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এসবি



এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত