সর্বশেষ

  বিয়ানীবাজার পৌরসভায় কাউন্সিলর পদে কে কতো ভোট পেয়ে নির্বাচিত হলেন   শাবিতে সাংবাদিক পেটানোর ঘটনায় সপ্তাহব্যাপী গণস্বাক্ষর কর্মসূচি সমাপ্ত   মাধবপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ফেঞ্চুগঞ্জে কুশিয়ারা নদীতে ভাসছে লাশ   কুলাউড়ার চাতলাপুর চা বাগানে নারী শ্রমিকদের কর্মবিরতি অব্যাহত : যোগ দিলেন পুরুষ শ্রমিকরাও   কেন বাংলাদেশে আসছে না পাকিস্তান?   গণভবনে হাসিনার সাথে ডেভিড ক্যামেরনের সাক্ষাৎ   শনিবার সুনামগঞ্জ আসছেন ওয়ার্কার্স পার্টি ও যুব মৈত্রীর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ   হিমালয়ে নিখোঁজ পবর্তারোহীকে ৪৭ দিন পর উদ্ধার   সিলেট মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে রয়েছেন যারা   মদনমোহন কলেজে ডিগ্রি (পাস) কোর্সে রিলিজস্লিপে ভর্তির শেষ তারিখ ৩০ এপ্রিল   চাপাইনবাবগঞ্জে জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের জন্য শেষ আহ্বান   চলে গেলেন অভিনেতা বিনোদ খান্না   শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত   কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ জাতীয়করণে এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে শিক্ষা বিষয়ক গেøাবাল অ্যাকশন র‌্যালি শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত   শায়েস্তাগঞ্জসহ ৬ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একঘণ্টা কর্মবিরতি   ছাতকে ব্যবসায়ীদের নিয়ে কাস্টম্স বিভাগের কর্মশালা সম্পন্ন   মোল্লারগাঁও ইউপি ৩নং ওয়ার্ড তালামীযের মতবিনিময় সভা   আব্দুস সামাদ আজাদের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নবজীবন দিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো জীবাণু!

প্রকাশিত : ২০১৫-১০-০১ ২১:৪৩:০৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০১৫ ॥ সাইবেরিয়ার সাখা প্রজাতন্ত্রে প্রাচীন বরফস্তরের নিচে সন্ধান মিলেছিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো ‘ব্যাসিলাস এফ’ ব্যাক্টেরিয়ার। এই জীবাণু শরীরে নিয়ে নবজীবন পেলেন মস্কোর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওক্রাইওলজি বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী আনাতোলি ব্রৌচকভ।

দুই বছরেরও আগে পরীক্ষামূলকভাবে নিজের শরীরে সেই ব্যাক্টেরিয়া ইনজেক্ট করেন তিনি। রক্তে এই প্রাচীন ব্যাক্টেরিয়া মেশার পর কী প্রতিক্রিয়া হয়, তা দেখতেই এই পরীক্ষা। 

অধ্যাপক ব্রৌচকভ জানান, লক্ষ লক্ষ বছর ধরে জীবিত এই ব্যাক্টেরিয়ার মধ্যে আয়ু বৃদ্ধি করার ক্ষমতা রয়েছে। পরীক্ষায় জানা গেছে, ব্যাসিলাস এফ ব্যাক্টেরিয়ার সাহায্যে বয়স্ক স্ত্রী ইঁদুর সন্তানধারণে সক্ষম হয়েছে। এমনকি এর সাহায্যে চরম শীতল আবহাওয়াতেও ফসল ফলানো সম্ভব হয়েছে।

২০০৯ সালে প্রত্যন্ত সাখা প্রজাতন্ত্রের ম্যামথ মাউন্টেনে তুষারস্তরের ভেতরে এই ব্যাক্টেরিয়া আবিষ্কার করেন ব্রৌচকভ। তার দাবি, শরীরে এই ব্যাক্টেরিয়া প্রবেশ করানোর পর গত দুই বছরে সর্দি-কাশিতে ভোগেননি। সেই সঙ্গে প্রতিদিন তার কাজের সময়ও দীর্ঘায়িত হয়েছে।

তবে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না তা পরীক্ষা সাপেক্ষ। ব্রৌচকভ জানিয়েছেন, বিস্তারিত জানতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে পরীক্ষা করা জরুরি। পরীক্ষা সফল হলে ব্যাসিলাস এফ মানুষের আয়ু বৃদ্ধির অমোঘ দাওয়াই হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন তিনি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত