সর্বশেষ

  মিঠু ব্যাংকার হতে চায়   আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা : মুফতি হান্নানের মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত রায় প্রকাশ   ওসমানীনগরে যুবকের আত্মহত্যা   চলে গেলেন প্রখ্যাত অভিনেত্রী গীতা সেন   সিলেট সোসিও ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন কমিটি পুনর্গঠন   ফেঞ্চুগঞ্জে নবগঠিত উপজেলা ছাত্রলীগ দু’টি ধারায় বিভক্ত   ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স : লোকবল ও যন্ত্রপাতির অভাবে চিকিৎসাসেবা ব্যাহত   আদালতে জাকারবার্গ, অস্বীকার করলেন অভিযোগ   সাক্ষী না আসায় পেছালো কিবরিয়া হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ   শ্রীমঙ্গলে তক্ষক পাচারকারী চক্রকে কারাদণ্ডসহ জরিমানা   কাদের সিদ্দিকীর আপিল খারিজ : বাধা নেই উপনির্বাচনে   বালাগঞ্জ উপজেলায় অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী আজ   সিলেট জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্যদের শপথ গ্রহণ   হবিগঞ্জে ডিজিটাল মেলার প্রতি তরুণ প্রজন্মকে আকৃষ্ট করতে হবে : জেলা প্রশাসক সাবিনা   ডব্লিউইএফের সভায় প্রধানমন্ত্রী   হবিগঞ্জে বর্ণিল আলোয় উদ্বোধন হল অস্কার এমপি আবু জাহির টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট   ‘মতিউর রহমান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন’   হাওর অঞ্চলের শিক্ষকদেরকে আরো দায়িত্বশীল ও সচেতন হতে হবে : জেলা প্রশাসক   কাউন্সিলর আজাদ কাপ ফুটসালের মঙ্গলবারের ৬টি খেলা সম্পন্ন   রিকাবীবাজারে বৃহৎ পানির স্তরের সন্ধান

নবজীবন দিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো জীবাণু!

প্রকাশিত : ২০১৫-১০-০১ ২১:৪৩:০৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০১৫ ॥ সাইবেরিয়ার সাখা প্রজাতন্ত্রে প্রাচীন বরফস্তরের নিচে সন্ধান মিলেছিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো ‘ব্যাসিলাস এফ’ ব্যাক্টেরিয়ার। এই জীবাণু শরীরে নিয়ে নবজীবন পেলেন মস্কোর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওক্রাইওলজি বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী আনাতোলি ব্রৌচকভ।

দুই বছরেরও আগে পরীক্ষামূলকভাবে নিজের শরীরে সেই ব্যাক্টেরিয়া ইনজেক্ট করেন তিনি। রক্তে এই প্রাচীন ব্যাক্টেরিয়া মেশার পর কী প্রতিক্রিয়া হয়, তা দেখতেই এই পরীক্ষা। 

অধ্যাপক ব্রৌচকভ জানান, লক্ষ লক্ষ বছর ধরে জীবিত এই ব্যাক্টেরিয়ার মধ্যে আয়ু বৃদ্ধি করার ক্ষমতা রয়েছে। পরীক্ষায় জানা গেছে, ব্যাসিলাস এফ ব্যাক্টেরিয়ার সাহায্যে বয়স্ক স্ত্রী ইঁদুর সন্তানধারণে সক্ষম হয়েছে। এমনকি এর সাহায্যে চরম শীতল আবহাওয়াতেও ফসল ফলানো সম্ভব হয়েছে।

২০০৯ সালে প্রত্যন্ত সাখা প্রজাতন্ত্রের ম্যামথ মাউন্টেনে তুষারস্তরের ভেতরে এই ব্যাক্টেরিয়া আবিষ্কার করেন ব্রৌচকভ। তার দাবি, শরীরে এই ব্যাক্টেরিয়া প্রবেশ করানোর পর গত দুই বছরে সর্দি-কাশিতে ভোগেননি। সেই সঙ্গে প্রতিদিন তার কাজের সময়ও দীর্ঘায়িত হয়েছে।

তবে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না তা পরীক্ষা সাপেক্ষ। ব্রৌচকভ জানিয়েছেন, বিস্তারিত জানতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে পরীক্ষা করা জরুরি। পরীক্ষা সফল হলে ব্যাসিলাস এফ মানুষের আয়ু বৃদ্ধির অমোঘ দাওয়াই হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন তিনি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত