সর্বশেষ

  শাবি উপাচার্য অসুস্থ, ঢাকায় প্রেরণ   ঈদে রাস্তায় থাকবে বিআরটিসির ৯০০ বাস   দিরাইয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ   টস জিতে ফিল্ডিংয়ে টাইগাররা   সিলেট বিভাগকে বাল্যবিবাহমুক্ত ঘোষণা   দীর্ঘ ১৭ বছর পর এফডিসিতে ফিরছেন শাবানা?   শ্রীমঙ্গলে উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন   বিশ্বনাথে স্বামীর হাতে খুন হলেন স্ত্রী   অভিযোগের পাহাড় শিক্ষার্থীদের : হল থেকে বিতাড়িত শাবির সেই ‘অপরাধ সম্রাট’   কুসিক মেয়র সাক্কুর স্থায়ী জামিন   গোয়াইনঘাটের রুস্তমপুর ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা   শিক্ষক শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা   অর্ধেক বৃত্তে মৌলভীবাজার শহীদ মিনার!   যুক্তরাজ্যে আরও সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে   মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য গড়ার খাবার   আজ মাশরাফি চোখ রাখছেন জয়ে   জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি বাড়ি ঘেরাও   সিলেটে বজ্রপাতে শ্যালক-দুলাভাইসহ নিহত ৩   মৌলভীবাজারের মোস্তফাপুর ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা   চরগাঁওয়ে রাস্তা উদ্বোধন করলেন এমপি কেয়া চৌধুরী

নবজীবন দিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো জীবাণু!

প্রকাশিত : ২০১৫-১০-০১ ২১:৪৩:০৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০১৫ ॥ সাইবেরিয়ার সাখা প্রজাতন্ত্রে প্রাচীন বরফস্তরের নিচে সন্ধান মিলেছিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো ‘ব্যাসিলাস এফ’ ব্যাক্টেরিয়ার। এই জীবাণু শরীরে নিয়ে নবজীবন পেলেন মস্কোর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওক্রাইওলজি বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী আনাতোলি ব্রৌচকভ।

দুই বছরেরও আগে পরীক্ষামূলকভাবে নিজের শরীরে সেই ব্যাক্টেরিয়া ইনজেক্ট করেন তিনি। রক্তে এই প্রাচীন ব্যাক্টেরিয়া মেশার পর কী প্রতিক্রিয়া হয়, তা দেখতেই এই পরীক্ষা। 

অধ্যাপক ব্রৌচকভ জানান, লক্ষ লক্ষ বছর ধরে জীবিত এই ব্যাক্টেরিয়ার মধ্যে আয়ু বৃদ্ধি করার ক্ষমতা রয়েছে। পরীক্ষায় জানা গেছে, ব্যাসিলাস এফ ব্যাক্টেরিয়ার সাহায্যে বয়স্ক স্ত্রী ইঁদুর সন্তানধারণে সক্ষম হয়েছে। এমনকি এর সাহায্যে চরম শীতল আবহাওয়াতেও ফসল ফলানো সম্ভব হয়েছে।

২০০৯ সালে প্রত্যন্ত সাখা প্রজাতন্ত্রের ম্যামথ মাউন্টেনে তুষারস্তরের ভেতরে এই ব্যাক্টেরিয়া আবিষ্কার করেন ব্রৌচকভ। তার দাবি, শরীরে এই ব্যাক্টেরিয়া প্রবেশ করানোর পর গত দুই বছরে সর্দি-কাশিতে ভোগেননি। সেই সঙ্গে প্রতিদিন তার কাজের সময়ও দীর্ঘায়িত হয়েছে।

তবে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না তা পরীক্ষা সাপেক্ষ। ব্রৌচকভ জানিয়েছেন, বিস্তারিত জানতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে পরীক্ষা করা জরুরি। পরীক্ষা সফল হলে ব্যাসিলাস এফ মানুষের আয়ু বৃদ্ধির অমোঘ দাওয়াই হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন তিনি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত