সর্বশেষ

  ছাতকে পৃথক সংঘর্ষে আহত ৫০, গ্রেফতার ১   জকিগঞ্জে ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার   এতিমদের নিয়ে ক্যাডেট কলেজ ক্লাব সিলেটের ইফতার মাহফিল   শাবিতে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ওয়েবসাইট উদ্বোধন   শাবির স্বপ্নোত্থানের ঈদবস্ত্র বিতরণ   সেই কলকাতাকে হারিয়ে ফাইনালে সাকিবদের হায়দরাবাদ   ‘আদর্শ সমাজ গঠনে রমজানের শিক্ষাকে কাজে লাগাতে হবে’   সাচনা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানপাঠ পরিদর্শনে রঞ্জিত সরকার   জামালগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাই ৯ দোকান: দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি   লা-মাযহাবীদের প্রতিহত না করলে সিলেটের ধর্মপ্রাণ জনতা কঠিন সিদ্ধান্ত নেবে: হুছামুদ্দীন চৌধুরী   মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অভিযান: ইয়াবা ট্যাবলেট ও অটোরিকশাসহ আটক ১   কানাইঘাটে লেগুনার ধাক্কায় নিহত ট্রাক চালকের দাফন সম্পন্ন   মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে আত্মপ্রকাশ করলো ‘হাত বাড়াও’   ছাতকে সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার   মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে ছাতকে ভাই-বোনসহ আটক ৩   ছাতকে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১৫   বিশ্বভারতীতে শেখ হাসিনার জন্য প্রস্তুত উপহারের ডালি   সুধীজনদের মিলনমেলায় সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন   শাবিতে কর্মচারীকে বেধড়ক পিটুনী   বাহুবলে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে কৃষকের মৃত্যু

নবজীবন দিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো জীবাণু!

প্রকাশিত : ২০১৫-১০-০১ ২১:৪৩:০৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০১৫ ॥ সাইবেরিয়ার সাখা প্রজাতন্ত্রে প্রাচীন বরফস্তরের নিচে সন্ধান মিলেছিল ৩৫ লাখ বছরের পুরনো ‘ব্যাসিলাস এফ’ ব্যাক্টেরিয়ার। এই জীবাণু শরীরে নিয়ে নবজীবন পেলেন মস্কোর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওক্রাইওলজি বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী আনাতোলি ব্রৌচকভ।

দুই বছরেরও আগে পরীক্ষামূলকভাবে নিজের শরীরে সেই ব্যাক্টেরিয়া ইনজেক্ট করেন তিনি। রক্তে এই প্রাচীন ব্যাক্টেরিয়া মেশার পর কী প্রতিক্রিয়া হয়, তা দেখতেই এই পরীক্ষা। 

অধ্যাপক ব্রৌচকভ জানান, লক্ষ লক্ষ বছর ধরে জীবিত এই ব্যাক্টেরিয়ার মধ্যে আয়ু বৃদ্ধি করার ক্ষমতা রয়েছে। পরীক্ষায় জানা গেছে, ব্যাসিলাস এফ ব্যাক্টেরিয়ার সাহায্যে বয়স্ক স্ত্রী ইঁদুর সন্তানধারণে সক্ষম হয়েছে। এমনকি এর সাহায্যে চরম শীতল আবহাওয়াতেও ফসল ফলানো সম্ভব হয়েছে।

২০০৯ সালে প্রত্যন্ত সাখা প্রজাতন্ত্রের ম্যামথ মাউন্টেনে তুষারস্তরের ভেতরে এই ব্যাক্টেরিয়া আবিষ্কার করেন ব্রৌচকভ। তার দাবি, শরীরে এই ব্যাক্টেরিয়া প্রবেশ করানোর পর গত দুই বছরে সর্দি-কাশিতে ভোগেননি। সেই সঙ্গে প্রতিদিন তার কাজের সময়ও দীর্ঘায়িত হয়েছে।

তবে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না তা পরীক্ষা সাপেক্ষ। ব্রৌচকভ জানিয়েছেন, বিস্তারিত জানতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে পরীক্ষা করা জরুরি। পরীক্ষা সফল হলে ব্যাসিলাস এফ মানুষের আয়ু বৃদ্ধির অমোঘ দাওয়াই হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন তিনি।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত