সর্বশেষ

  কোম্পানীগঞ্জের শামীমসহ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারসহ ৩দফা দাবিতে স্মারকলিপি   নির্বাচনে বিএনপি জোটে থাকবে জামায়াত: ফখরুল   টুকেরবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষকের ইন্তেকাল   টিলাকেটে ভরাট চলছে শাহজালাল ফার্টিলাইজার কোম্পানির আবাসিক জমি!   গ্রেটার ম্যানচেস্টার আ’লীগ সভাপতি ছুরাবুর রহমান ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আমিনুল হক সিলেটে সংবর্ধিত   মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা : এমপি রানার জামিন হাই কোর্টে নাকচ   বঙ্গবন্ধুর ভাষণের স্বীকৃতি আনন্দের : ফখরুল   ওয়ানডেতে ড্যাডসওয়েলের 'ড্যাডলি' ৪৯০ রানের রেকর্ড!   অধ্যাপক ফখরুলের মৃত্যুতে এমপি ইমরান আহমদের শোক   দেওয়ান ফরিদ গাজীর মৃত্যুবার্ষিকী আজ : স্মরণসভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা   জগন্নাথপুরে সংঘর্ষে আহত ১০   শিক্ষাকে প্রাধান্য দিয়ে শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনা করছেন: এমপি আবু জাহির   খাদিমপাড়ায় পাহাড় কাটার দায়ে একজনকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা   নগরীর বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করলেন সিসিক মেয়র আরিফ   বালাগঞ্জে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ৮ হাজার শিক্ষার্থী   মাধবপুরে নববধূর মৃত্যু   দিরাইয়ে মাধ্যমিক বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারি কল্যাণ সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন   দেওয়ান ফরিদ গাজীর মৃত্যুবার্ষিকী আজ : স্মরণসভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা   সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কর্মসূচি পালিত   আম্বরখানায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও অটোরিক্সা শ্রমিকদের সংঘর্ষ: আহত ৬

জনশূন্য হবে পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চল!

প্রকাশিত : ২০১৫-১০-৩১ ১৪:২৬:৫৭

ফিচার ডেস্ক : শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৫ ॥ আমাদের এই বাস্তুজগতের নানান অনুষঙ্গ নিয়েই সকল প্রাণের জীবনযাপন। বায়ুমণ্ডলে থাকা হরেক ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র পদার্থ থেকে শুরু করে নানান পদার্থ প্রতিদিন আমাদের জীবনযাপনের ভারসাম্য রক্ষায় সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। সেই উপাদানগুলোর মধ্যে পরিবেশগত দিক দিয়ে কার্বন-ডাই অক্সাইডের প্রভাব বেশ উল্লেখযোগ্য। কার্বন-ডাই অক্সাইড একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রিন হাউজ গ্যাস যা ভূপৃষ্ঠের বিকীর্ণ তাপ শোষণ করে ভারসাম্য রক্ষা করে। শিল্প বিপ্লবের পর থেকে কার্বণভিত্তিক জ্বালানি দহনের ফলে বায়ুমণ্ডলে কার্বন-ডাই অক্সাইডের পরিমাণ দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। যে কারণে তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পরিবর্তিত হচ্ছে আমাদের জলবায়ু। ধারনা করা হচ্ছে, তাপমাত্রা বৃদ্ধির এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে আগামী ২১০০ সালের দিকে পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের অস্তিত্ব হুমকির মুখে পরবে।

নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে পারস্যের উপসাগরীয় অঞ্চলগুলোতে কার্বন-ডাই অক্সাইড নির্গত হওয়ার পরিমাণ দিন দিন বাড়ার কারণে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। কার্বন-ডাই অক্সাইড নির্গত হওয়ার এই ধারা অব্যাহত থাকলে শতাব্দীর শেষের দিকে ওই উপসাগরীয় অঞ্চলের মানুষের জন্য তাপমাত্রা সহ্য করা বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে উঠবে। কারণ তখন গরমের পরিমাণ এত বেশি হবে যা মানুষের সহ্য সীমার বাইরে চলে যাবে।

পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে বর্তমান তাপদাহে বৃদ্ধরা ও অসুস্থরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিন্তু এই তাপদাহের ধারা অব্যাহত থাকলে ভবিষ্যতে সুস্থরাও অসুস্থ হয়ে যাবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, তখন সেই দেশগুলোতে সুস্থ মানুষ খুঁজে পাওয়া বেশ কষ্টসাধ্য হবে। উচ্চ তাপের সঙ্গে আর্দ্রতার সংমিশ্রনে তখন ১৬৫ থেকে ১৭০ ডিগ্রি পর্যন্ত সেলসিয়াস তাপমাত্রা হতে পারে অন্তত টানা ছয় ঘণ্টার জন্য। বেশকিছু নতুন গবেষণা মতে, তখন পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের মানুষ ওই তাপ সহ্য করতে পারবে না।

ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) পরিবেশ প্রকৌশলী অধ্যাপক এলফেইথ এলথায়ার বলেন- ‘আপনি যদি একটি ভেজা স্টিমবাথে যান এবং সেখানকার তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মত করে দিন তাহলে আপনি তা কেবল কিছুক্ষনের জন্য সহ্য করতে পারবেন। কিন্তু ছয় ঘন্টা বা এরচেয়ে বেশি সময় তা সহ্য করা মোটেও সম্ভব না’।

২০০৩ সালে তাপ ও আর্দ্রতা একইভাবে বেড়ে যাওয়ার কারণে ইউরোপের প্রায় ৭০ হাজার মানুষ মারা গিয়েছিল। এছাড়া আবুদাবি, দুবাই এবং দোহার মত দেশগুলোতে যদি এয়ার কন্ডিশনিং ব্যাবস্থা না থাকতো তাহলে সে দেশগুলো বসবাসের অনুপযোগি হয়ে যেতো। কিন্তু যারা বাইরে কাজ করে অথবা যাদের এয়ার কন্ডিশন নেই তাদের জন্য তাপের তীব্রতা সহ্য করা অনেক কঠিন। তেমনি আর একটি অঞ্চল মক্কা। সেখানেও তাপমাত্রা এত বেশি থাকে যার কারণে প্রতি বছর হজে অনেক হাজি গরমের কারণে মারা যায়। জলবায়ু বিষয়ক গবেষক চেরিস বলেছেন, যদি আমরা আমাদের জলবায়ু পরিবর্তন করতে না পারি তাহলে আমাদের বসবাসের জন্য অন্য জায়গা খুঁজে বের করতে হবে।

ওয়াশিংটনের জনস্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ড: হাভার্ড ফ্রামকিন বলেছেন- যদি পরিবেষ্টিত তাপমাত্রা অসহনীয় হারে বাড়তে থাকে তাহলে পৃথিবীতে মানুষ মারা যাবে। তার এই মন্তব্যের পর উপসাগরীয় রাষ্ট্রগুলো ভীতির মধ্যে পরে গেছে। যদি ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে কার্বন-ডাই অক্সাইডের এই নির্গমন রোধ করা যায় তাহলে তাপমাত্রা ও আর্দ্রতার এই সমস্যা থেকে উত্তরণ সম্ভব বলে মনে করেন প্রকৌশলী এলথায়ার।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এসবি

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত