সর্বশেষ

  ছাতকের চেলা নদী নৌকা বাইচ অনুষ্টিত   মিয়ানমারের রাখাইনে হিন্দু গণকবর : ২৮ মরদেহ উদ্ধারের দাবি সেনাবাহিনীর!   'শিক্ষার ভীত মজবুত করতে সরকার প্রাথমিক শিক্ষার উপর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে'   শাবিপ্রবিতে কারিকুলাম উন্নয়ন বিষয়ে সেমিনার   বিয়ের প্রলোভন দিয়ে অনাথ কিশোরী ধর্ষণ : ২০ হাজারে মিটমাটের চেষ্টা   রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকারের দাবীতে ছাত্র মজলিস সিলেট মহানগরীর বিক্ষোভ   'শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের যৌথ প্রচেষ্ঠায় মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করা দরকার'   রিয়ালকে জয়ে ফেরালেন নবীন সেবায়োস   কমেছে চালের দাম, কমবে আরও   লন্ডনে আবারো এসিড হামলা, আহত ৬   তথ্য-প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে : ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল   মহিউদ্দিন শীরু’র ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী ২৫ সেপ্টেম্বর   ধর্ম যার যার, উৎসব সবার : কামরান   ওসমানীনগরে নিয়মিত বসে জুয়ার আসর, প্রশাসন নিরব   জগন্নাথপুরে বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু   ফেঞ্চুগঞ্জে সড়ক মেরামতের দাবিতে আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা   মৌলভীবাজারে ‘শিক্ষা দিবস’ পালিত   হত্যা মামলার আসামী টিটু ও সুলেমান এখনও অধরা   ফেঞ্চুগঞ্জে পরিবহণ শ্রমিক নেতাদের সাথে প্রশাসনের সভা   রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদে ওয়ার্কার্স পার্টির প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

সিলেটের বিনোদন কেন্দ্রগুলোর মতো স্টেডিয়াম পাড়ায়ও দর্শনার্থীর ভিড়

প্রকাশিত : ২০১৫-০৯-২৮ ০০:৫০:৩৮

তুহিন ইসলাম রনি : সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ॥ শেষ হয়েছে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা’র ছুটি। শহর পানে ফিরতে শুরু করেছে নাড়ির টানে ছুটে যাওয়া মানুষগুলো। শহরের কোলাহলমুখর পরিবেশ কয়েকদিনের জন্য ছিলো নিরব-নিস্তব্ধ। ছিলো না কোলাহল। ছিলো না যানজট। ঈদের ছুটি শেষ হওয়ায় আবারও একটু একটু করে কোলাহলে মুখরিক হচ্ছে নগরী। ফিরে পাচ্ছে ব্যস্ত নগরীর তার চিরচেনা রূপ।

ঈদের ছুটিতে অনেকে পরিবার-পরিজনের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে ছুটি গিয়েছেন গ্রামে। কিন্তু যার শহরে রয়েছেন তারাও বঞ্চিত হতে চাননি ঈদের আনন্দ থেকে। পুরোদমে কাজে লাগিয়েছেন ঈদের ছুটি। ছুটে গিয়েছেন বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে। কেউ ছুটেছেন একা আবার কেউ নিয়েছেন সঙ্গী। অনেকেই আবার ঈদের আনন্দ আরো বাড়াতে পরিবার নিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন পছন্দের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে।

ঈদের দিন থেকে শুরু করে ঈদের তৃতীয় দিনেও সিলেটের প্রায় সব বিনোদনকেন্দ্রে ছিলো দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। ভ্রমণপ্রেমীরা পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরে বেড়ান নগরীর ওসমানী শিশু উদ্যান, ড্রিমল্যান্ড, টিলাগড় ইকো পার্ক, অ্যাডভেঞ্জার ওয়ার্ল্ডের মতো বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে।

আবার অনেকেই ছুটে গেছেন প্রকৃতিকন্যা জাফলং, সুউচ্চ জলপ্রপাত মাধবকুণ্ড, জলারবন রাতারগুল, বিছনাকান্দি, লোভাছড়া কিংবা স্বচ্ছ পানির লালাখালে।

সিলেটের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলোর মতো উপচে পড়া ভিড় লক্ষণীয় ছিলো সিলেট বিভাগীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম পাড়ার লাক্কাতুরা চা-বাগান এলাকায়। অনেকেই প্রিয়জনকে সাথে নিয়ে ঘুরতে এসেছেন এখানে। উপভোগ করছেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। ঘুরে বেড়াচ্ছেন চা-বাগানের বিভিন্ন স্থান। শুধু ঘুরেই যেন আনন্দের শেষ নয়। আনন্দে পরিপূর্ণ মুহূর্তটাকে স্মৃতির পাতায় ধরে রাখতে প্রকৃতির সাথে মিশে ফ্রেমবন্দি করছেন নিজেকে। তুলছেন নানা ভঙ্গিতে ছবি।

আগত সৌন্দর্যপ্রেমী দর্শনার্থীদের ক্লান্তির অবসানের জন্য অনেকে নিয়ে বসেছেন চটপটি, ফুস্কার দোকান। এসব দোকানেও যেন বসার জায়গা করতে পাচ্ছেন না দোকানী। সেও যেন মহা ব্যস্ত দর্শনার্থীদের আপ্যায়নে।

এছাড়া সৌন্দর্য বা বিনোদনপ্রেমীদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে নবনির্মিত কাজিরবাজার সেতু। সেতুটি নির্মাণের পর এখন অপেক্ষায় রয়েছে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের। তাই উদ্বোধনের আগেই এখানে ঘুরতে আসছেন অনেকে। ঈদের ছুটিতে দর্শনার্থীর সংখ্যাও বেড়েছে কয়েকগুণ।

প্রতিদিন বিকেলে নগরীর কাজিরবাজারে সুরমা নদীর ওপর নবনির্মিত দৃষ্টিনন্দন কাজিরবাজার সেতু দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখোরিত হয়ে উঠে। এখানেও চটপটি, ফুস্কার দোকনীরা বসেছেন বাড়তি ইনকামের আশায়।
 
বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে বাবা-মায়ের সঙ্গে বেড়াতে আসা শিশু-কিশোররা বাঁধভাঙা আনন্দে মেতেছেন। আর তাদের বিনোদন ছুঁয়েছে বড়দের হৃদয়েও। তাই শিশুদের সাথে পাল্লা দিয়ে আনন্দে মেতে উঠেছেন তারাও।

অন্যদিকে শুধু সিলেটের স্থানীয় শহরে মানুষ নয়, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টানে সিলেটের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ছুটে এসেছেন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অনেক পর্যটক। তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন সিলেটের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/টিআই-আর

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত