সর্বশেষ

  কবি শান্ত খুমন আর নেই   কর্মসংস্থান ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনোজ রায়কে সংবর্ধনা প্রদান   ৫ পদে ৮ জন লোক নেবে সিলেট মহানগর পুলিশ   নবীগঞ্জে পল্লীবিদ্যুতের ‘ভুতুড়ে’ বিলের চাপে গ্রাহক, এলাকায় অসন্তোস   বীরপ্রতীক কাকন বিবির শয্যাপাশে মহানগর যুবলীগের নেতৃবৃন্দ   হবিগঞ্জে চার শিশু হত্যা মামলা: ৩ আসামির ফাঁসির রায়   বিয়ের আগে রাজনীতি বুঝতাম না: রিজিয়া নদভী   কলেজছাত্রীকে পেটানো সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার   ওসমানীনগরের বেগমপুর শরৎ সুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক আব্দুল লতিফ আর নেই   মোবাইল কোর্ট নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে রাখার দাবি ডিসিদের   এবারের এইচএসসির ফলাফলে গোয়াইনঘাটের তোয়াকুল কলেজ শীর্ষে   বিয়ানীবাজারে জনতার হাতে প্রতারক আটক   রায় শোনার অপেক্ষায় সুন্দ্রাটিকি গ্রামের নিহত ৪ শিশুর পরিবার   সিলেটের আইকন খেলোয়াড় সাব্বির   ফেসবুকে ‘বিশ্বনাথীকে’ নিয়ে শিক্ষকের কটুক্তি : উপজেলা চেয়ারম্যান বরাবর অভিযোগ   জগন্নাথপুরে খুন ও ডাকাতির মামলার আসামি গ্রেফতার   কুলাউড়ার বন্যাকবলিত এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুৎলাইন : দুর্ঘটনার আশঙ্কা   ধর্মপাশায় বিএনপির সদস্য সংগ্রহ উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা   বিয়ানীবাজারে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু   ওসমানী মেডিকেল কলেজে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন

দেখা মিলবে ১৪ গুণ বড় রক্তিম চাঁদের

প্রকাশিত : ২০১৫-০৯-২৬ ১৫:৩০:৩৬

ফিচার ডেস্ক : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ॥ মহাকাশ সম্পর্কে আগ্রহীরা যেন এখন থেকেই আকাশের দিকে চোখ রাখছেন। অবশ্য কোনো ভিনগ্রহবাসীর যান বা নতুন কোনো নক্ষত্র দেখার আশায় এই আকাশ পানে তাকানো নয়। চলতি বছরে পঞ্চমবারের মতো হতে যাচ্ছে সুপারমুন বা রক্তিম চাঁদ, আর সেই রক্তিম চাঁদ দেখার আশাতেই ওই আকাশ পানে তাকিয়ে থাকা। মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার পক্ষ থেকে আগামীকাল ২৭ সেপ্টেম্বর রাতের রক্তিম চাঁদকে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলা হচ্ছে। এই চাঁদের পিঠে সওয়ার হয়েই আসবে চলতি মাসের সর্বশেষ পূর্ণিমা।

রবিবার মধ্যরাতে স্বাভাবিক রাতগুলোর তুলনায় পৃথিবীর অনেকটাই কাছাকাছি চলে আসবে চাঁদ। ওই সময় চাঁদের সঙ্গে পৃথিবীর দূরত্ব হতে পারে আনুমানিক দুই লাখ ২১ হাজার ৭৫৪ মাইল। ঠিক ওই সময় পৃথিবী চাঁদ এবং সূর্যের মধ্যবর্তী স্থানে বিরাজ করবে। শুরুর দিকে চাঁদকে কিছুটা ধূসর থেকে শুরু হয়ে তামাটে বর্ণ ধারণ করলেও ক্রমশ রক্তিম বর্ণের দিকে যাবে। আবহাওয়াবিদদের মতে, রক্তিম চাঁদ পৃথিবীতে বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিপর্যয় নিয়ে আসতে পারে। যদিও প্রকৃতিতে এখন পর্যন্ত সেরকম কোনো আলামত পাওয়া যায়নি।

চাঁদ পৃথিবীর কাছাকাছি অবস্থান করার কারণে চাঁদকে অন্যান্য দিনের তুলনায় ১৪গুন বেশি বড় এবং অন্তত ৩০ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল দেখাবে। তবে এই দৃশ্য সবচেয়ে বেশি ভালোভাবে দেখা যাবে উত্তর আমেরিকা, বিশেষ করে পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চল থেকে। তবে এশিয়া অঞ্চল থেকেও রক্তিম চাঁদ দেখা গেলেও অতটা উজ্জ্বল চাঁদের দেখা নাও মিলতে পারে। মহাকাশ বিজ্ঞানীদের পক্ষ থেকে উজ্জ্বল চাঁদ দেখার ক্ষেত্রে চশমা ব্যবহার করার কথা জানিয়েছেন।

এদিকে, এই ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী হতে ইতোমধ্যেই অনেক দেশের মহাকাশ বিষয়ক সংস্থাগুলো জনসাধারণের জন্য এই রক্তিম চাঁদ দেখার আয়োজন করছে। নিউইয়র্কের ইন্টারপিড জাদুঘর থেকে হাডসন নদীর ধার থেকে চাঁদ দেখার বন্দোবস্ত করা হয়েছে। নদীর ধারে রাখা থাকবে শক্তিশালী টেলিস্কোপ, যা দিয়ে চাঁদের শরীর স্পষ্ট দেখা যাবে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের দিল্লিতেও একই ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এসবি

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত