সর্বশেষ

  বাগবাড়িতে শ্রীশ্রী গৌরাঙ্গ মহাপ্রভু আখড়ার পুনঃনির্মাণ কাজের উদ্বোধন   কলকাতায় সম্মাননা পাচ্ছেন রাজ্জাক   জাকির হোসেনের সহায়তায় ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত রুমা ভারতে : চলতি সপ্তাহে অপারেশন   ভাস্কর্য অপসারণ ও শিক্ষক গ্রেফতারের প্রতিবাদে নিউইয়র্কে বিক্ষোভ   ভয়াবহ বিস্ফোরণ সাভারের ‘জঙ্গি আস্তানায়’   আর্জেন্টিনার কোচ সাম্পাওলিই   সাভারে ‘জঙ্গি আস্তানা’, পৌঁছেছে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল   ডাব দেবে গরমে সতেজ অনুভূতি   কুড়িয়ে পাওয়া নবজাতকের দায়িত্ব নিলেন ওসি   গর্বিত রুনা লায়লা   হুমকিতে হাকালুকি হাওর এলাকার শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন   বড়লেখায় চেয়ারম্যান কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা   আবু সাঈদ হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে জাউয়ায় মানববন্ধন   আমাদের পরিচয় ঢাকা পড়ে গেছে বিদেশি পরিচয়ে : এম.এ মান্নান   ইসলামী ব্যাংকের সিলেট জোনের ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলন অনুষ্ঠিত   সহায়তার হাতে মলিন মুখে খুশির ঝিলিক   সুতাংয়ের ভূয়া ডা. বেলালকে গ্রেফতারের দাবি   জকিগঞ্জে এসএসসি উত্তীর্ণদের সংবর্ধনা   জগন্নাথপুরে আইডিয়াল ভিলেজ ফোরামের আত্মপ্রকাশ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ   মৌলভীবাজারে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

এবারের অর্থবছরে প্রথমবারের মত আসছে শিশু-বাজেট

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-২১ ১৫:৩৮:২৪

উত্তরপূর্ব ডেস্ক:
আসন্ন ২০১৫-১৬ বাজেটে প্রথমবারের মতো এবার আসছে শিশু বাজেট। শিশুদের কল্যাণ ও অধিকার সুরক্ষায় এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

বুধবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘গত বছর বলেছিলাম, এ বছর শিশুদের জন্য বাজেট ঘোষণা করা হবে। তাই করছি। তবে প্রথমবার বলে তেমন ভালো আর বড় হবে না।’
এর আগে অর্থমন্ত্রী শিশু অধিকার সম্পর্কিত সংসদীয় ককাসের সঙ্গে এক প্রাক-বাজেট বৈঠক করেন। ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়া সংসদীয় ককাস প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।
ককাস প্রাথমিকভাবে ৫টি মন্ত্রণালয়কে শিশু বাজেটের আওতায় আনার সুপারিশ করছে। এগুলো হচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।
প্রতিবন্ধী শিশুরা যাতে করে পড়তে পারে সেজন্য প্রতিটি স্কুলের ৫ থেকে ১০ শতাংশ শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান, কিশোরী-বয়ঃসন্ধি ও স্বামী পরিত্যক্তদের বিশেষ সুরক্ষা প্রদানের সুপারিশ করেন উপস্থিত সংসদ সদস্যরা।
শিশুদের কল্যাণে গত বছর বাজেটে ৫০ কোটি টাকা থোক বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল উল্লেখ করে তারা বলেন, ‘শিশুদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ কীভাবে ব্যয় হচ্ছে সেটা মনিটরিং করা দরকার।’
এ প্রসঙ্গে একটি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে শিশুদের সব বরাদ্দ দেয়া হলে ব্যয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা বাড়বে বলে মত ব্যক্ত করা হয়।
সংসদীয় ককাস-এর এসব সুপারিশের জবাবে শিশুদের স্বাস্থ্য অধিকার নিশ্চিত করা, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা যাতে করে সাধারণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়তে পারে সেজন্য ১০ শতাংশ শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান ও শিশুদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে মনিটরিং-এর বিষয়ে সায় দেন অর্থমন্ত্রী।

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত