সর্বশেষ

  হাওরবাসীর দুর্যোগ নিয়ে তামাশা করবেন না   “আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমার কোন চাওয়া পাওয়া নেই”   গোলাপগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু   রশিদিয়া দাখিল মাদরাসায় বিশ্ব বই দিবস উদযাপন   এনইইউবিতে ‘ক্যারিয়ার ক্লাব’র যাত্রা শুরু   ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা   জামালগঞ্জে এক কিশোরীর দুই জন্ম নিবন্ধন: বাল্যবিবাহ সম্পন্ন, এলাকায় তোলপাড়   বিশ্বনাথে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৩২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে র‌্যালী   কাউন্সিলর আফতাবকে ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সংর্বধনা   সব চেষ্টা ব্যর্থ, তলিয়ে গেল শনি: হাওরপাড়ে চলছে কৃষকের আহাজারি   হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার পাবে মাসে ৩০ কেজি চাল ও নগদ অর্থ   মহাজনী ও এনজিও ঋনের চাপ: সব হারিয়ে দিশেহারা হাওরবাসী   বাবাকে ছাপিয়ে যেতে চান টাইগার শ্রফ   বাজারে আসুসের তিন জেনফোন   সুনামগঞ্জে শনির হাওরের বাঁধে ৩টি স্থানে ভাঙন   মহামতি লেনিনের জন্মবার্ষিকীতে সিলেটে লাল পতাকা মিছিল   ফ্রান্সে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে   লাখাইয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার   আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন তারেকের শাশুড়ি সিলেটের সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানু   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি হয়েছে : সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী

এবারের অর্থবছরে প্রথমবারের মত আসছে শিশু-বাজেট

প্রকাশিত : ২০১৫-০৫-২১ ১৫:৩৮:২৪

উত্তরপূর্ব ডেস্ক:
আসন্ন ২০১৫-১৬ বাজেটে প্রথমবারের মতো এবার আসছে শিশু বাজেট। শিশুদের কল্যাণ ও অধিকার সুরক্ষায় এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

বুধবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘গত বছর বলেছিলাম, এ বছর শিশুদের জন্য বাজেট ঘোষণা করা হবে। তাই করছি। তবে প্রথমবার বলে তেমন ভালো আর বড় হবে না।’
এর আগে অর্থমন্ত্রী শিশু অধিকার সম্পর্কিত সংসদীয় ককাসের সঙ্গে এক প্রাক-বাজেট বৈঠক করেন। ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়া সংসদীয় ককাস প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।
ককাস প্রাথমিকভাবে ৫টি মন্ত্রণালয়কে শিশু বাজেটের আওতায় আনার সুপারিশ করছে। এগুলো হচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।
প্রতিবন্ধী শিশুরা যাতে করে পড়তে পারে সেজন্য প্রতিটি স্কুলের ৫ থেকে ১০ শতাংশ শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান, কিশোরী-বয়ঃসন্ধি ও স্বামী পরিত্যক্তদের বিশেষ সুরক্ষা প্রদানের সুপারিশ করেন উপস্থিত সংসদ সদস্যরা।
শিশুদের কল্যাণে গত বছর বাজেটে ৫০ কোটি টাকা থোক বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল উল্লেখ করে তারা বলেন, ‘শিশুদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ কীভাবে ব্যয় হচ্ছে সেটা মনিটরিং করা দরকার।’
এ প্রসঙ্গে একটি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে শিশুদের সব বরাদ্দ দেয়া হলে ব্যয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা বাড়বে বলে মত ব্যক্ত করা হয়।
সংসদীয় ককাস-এর এসব সুপারিশের জবাবে শিশুদের স্বাস্থ্য অধিকার নিশ্চিত করা, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা যাতে করে সাধারণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়তে পারে সেজন্য ১০ শতাংশ শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান ও শিশুদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে মনিটরিং-এর বিষয়ে সায় দেন অর্থমন্ত্রী।

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত