সর্বশেষ

  ভাস্কর্যটি সুপ্রিম কোর্টের বর্ধিত ভবনের সামনে পুনঃস্থাপন   ব্যক্তি উদ্যোগে কানাইঘাট পৌর সভার ভবানীগঞ্জ বাজার রাস্তার সংস্কারকাজ শুরু   মাধবপুরে একাধিক মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার   বিশ্বনাথে এলাকাবাসীর সাথে প্রশাসনের বৈঠক   জগন্নাথপুরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১৫   রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় দক্ষিণ সুরমা কাঠ ক্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির র‌্যালি   খাঁরপাড়া আরজাদ আলী জামে মসজিদের উদ্বোধন করলেন সিটি মেয়র   নুরুলের দাদীর শয্যাপাশে ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন সিলেটের নেতৃবৃন্দ   ৬ষ্ঠ ঘূর্ণী প্রিমিয়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ   বিশ্বম্ভরপুরে বিএনপির আনন্দ মিছিল   জুড়ীতে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে   ভাস্কর্য সরানোর প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ সমাবেশ   বড়লেখায় কাবিটা ও কাবিখা’র আওতায় দরিদ্র ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সোলার প্যানেল বিতরণ   মোগলাবাজারে শাহ জকনের ত্রাণ বিতরণ   অংকন টেলেন্টপুলে জিপিএ-৫ পেয়েছে   মৌলভীবাজারে হলুদে সেজেছে প্রকৃতি, কদমের মৌ মৌ গন্ধ   দিরাইয়ে দুর্গত মানুষের পাশে প্রবাসী শফিকুল   দেশে উন্নয়নের জোয়ার বইছে : দক্ষিণ সুনামগঞ্জে এম.এ মান্নান   ‘বেসামরিক নাগরিকদের চিকিৎসাসেবায় বাংলাদেশ বাস্তবভিত্তিক পদ্ধতি গ্রহণ করছে’   দীর্ঘ ৮ বছর পর মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির নতুন কমিটি: আনন্দ মিছিল

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের মালিক আর নেই

প্রকাশিত : ২০১৫-০৭-০৯ ১৩:৩৬:২৫

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০১৫ ॥ দেশের অন্যতম বৃহত্তম শিল্প প্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেজর জেনারেল (অব.) আমজাদ খান চৌধুরী মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি.................রাজিউন)।

বাংলাদেশ সময় বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের যোগাযোগ কর্মকর্তা জিয়াউল হক উজ্জ্বল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আমজাদ খান চৌধুরী বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্যিক সংগঠন রিহ্যাব, বাপা, ইউসেপসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি হিসেবে ব্যবসায়িক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছেন।

১৯৪০ সালে উত্তরবঙ্গের নাটোর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন আমজাদ খান চৌধুরী। তার বাবার নাম আলী কাশেম খান চৌধুরী। আমজাদ খান চৌধুরী শিক্ষা জীবন শুরু করেন ঢাকায়। গ্র্যাজুয়েশন করেন পাকিস্তান মিলিটারি একাডেমি ও অস্ট্রেলিয়ান স্টাফ কলেজ থেকে।

১৯৫৬ সালে তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। কর্মজীবনে তিনি সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল পদে দায়িত্ব পালন করেন। আমজাদ খান চৌধুরী ১৯৮১ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেন। অবসরের পর তিনি প্রতিষ্ঠিত করেন প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ।

এদিকে, প্রাণ ও আর এফ এল গ্রুপের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব:) আমজাদ খান চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।
শোক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ সামরিক বাহিনীতে চাকুরীকালীন সময়ে পেশাদারিত্ব ও কর্তব্যনিষ্ঠায় মরহুম আমজাদ খান চৌধুরীর সুনাম ছিল। সেনাবাহিনী থেকে অবসর নিয়ে শিল্প ও ব্যবসা সম্প্রসারণে তিনি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তার প্রতিষ্ঠিত শিল্প-কলকারখানা বহু মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়েছে। তার প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত বিভিন্ন পণ্য বিদেশে রপ্তানীর মাধ্যমে দেশ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে আনছে। বাংলাদেশের বেসরকারী খাতের ভিত্তি এখন যে জায়গায় উপনীত হয়েছে সেক্ষেত্রে মরহুম আমজাদ খান চৌধুরীর ভুমিকা জাতি গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন মরহুম আমজাদ খান চৌধুরী-এর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্য, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি সমবেদনা জানান।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/এসবি

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত