সর্বশেষ

  ঈদে রাস্তায় থাকবে বিআরটিসির ৯০০ বাস   দিরাইয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ   টস জিতে ফিল্ডিংয়ে টাইগাররা   সিলেট বিভাগকে বাল্যবিবাহমুক্ত ঘোষণা   দীর্ঘ ১৭ বছর পর এফডিসিতে ফিরছেন শাবানা?   শ্রীমঙ্গলে উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন   বিশ্বনাথে স্বামীর হাতে খুন হলেন স্ত্রী   অভিযোগের পাহাড় শিক্ষার্থীদের : হল থেকে বিতাড়িত শাবির সেই ‘অপরাধ সম্রাট’   কুসিক মেয়র সাক্কুর স্থায়ী জামিন   গোয়াইনঘাটের রুস্তমপুর ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা   শিক্ষক শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা   অর্ধেক বৃত্তে মৌলভীবাজার শহীদ মিনার!   যুক্তরাজ্যে আরও সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে   মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য গড়ার খাবার   আজ মাশরাফি চোখ রাখছেন জয়ে   জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি বাড়ি ঘেরাও   সিলেটে বজ্রপাতে শ্যালক-দুলাভাইসহ নিহত ৩   মৌলভীবাজারের মোস্তফাপুর ইউনিয়নের বাজেট ঘোষণা   চরগাঁওয়ে রাস্তা উদ্বোধন করলেন এমপি কেয়া চৌধুরী   রাজনগরে ধর্ষক ও নারী নির্যাতনকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় : মিস্টার এন্ড মিস নির্বাচিত

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১১ ১১:১৯:২৩

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বুধবার ১১ নভেম্বর ২০১৫ ॥ ঝলমলে সন্ধ্যায় জমকালো আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো প্রতিভা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা মিস্টার এন্ড মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি-২০১৫। সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণে এ আয়োজনের মূল উদ্যোক্তা ছিলো ক্যাম্পাসের জনপ্রিয় সংগঠন কৃষ্ণচূড়া সাংস্কৃতিক সংঘ।

‘যে যা পারো দেখিয়ে দাও, প্রতিভার আলোকে হয়ে যাও মিস্টার এন্ড মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি’— এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বিকাল পাঁচটা থেকে প্রতিযোগিতার মূল কার্যক্রম শুরু হয়। এ বছরের নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে মিস্টার সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি নির্বাচিত হয়েছেন সৌরভ আচার্য এবং মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি নির্বাচিত হয়েছেন মাহমুদা আশরাফি।

মঞ্চ নির্দেশক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা খলিলুর রহমান ফয়সালের পরিচালনায় ফাইনাল রাউন্ডের অনুষ্ঠানটি সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোট ৩৪ জন প্রতিযোগী ‘মিস্টার এন্ড মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি ২০১৫’-এর মুকুট জেতার জন্য নাম নিবন্ধন করেছিল। প্রাথমিক বাছাই পর্বে (অডিশন রাউন্ড) প্রতিযোগীরা নিজ নিজ প্রতিভা যেমন নাচ, গান, অভিনয়, আবৃত্তি, বক্তৃতা অথবা যে যে বিষয়ে পারদর্শী তা বিচারকদের সামনে উপস্থাপন করেন।

প্রতিযোগীরা তাদের পছন্দ মতো বিষয় উপস্থাপনার পাশাপাশি বিচারকদের বিভিন্ন প্রশ্নের মুখোমুখি হন। চার ঘণ্টা এই আনন্দ আয়োজনের মধ্য দিয়ে নবীন শিল্পীদের প্রতিভা যাচাইয়ের পাশাপাশি দর্শকদের সঙ্গে কৌতুক রসে মেতে উঠেন সঞ্চালক।

ফাইনাল রাউন্ডের বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন কবি ও লেখক আখতারুজ্জামান আজাদ, মত্স্য স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মামুন, মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান, প্যারাসাইটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. তিলক চন্দ্র নাথ, মৌলিক বিজ্ঞান ও ভাষা বিভাগের প্রভাষক ও সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ রাহুল ভট্টাচার্য্য, মত্স্য স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক ও বিশিষ্ট অভিনেতা সৈয়দ মাশেকুল বারী।

কৃষ্ণচূড়ার সভাপতি প্রফেসর ডা. মোঃ জামাল উদ্দিন ভূঞা বলেন, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক প্রতিভার বড় প্ল্যাটফরম কৃষ্ণচূড়া। ২০০৯ সাল থেকে নবীনদের প্রতিভা অন্বেষণ ও বিকাশের লক্ষ্যে ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ আয়োজন করে আসছি আমরা। তার ধারাবাহিকতায় নতুন রূপে আরো জাঁকজমকভাবে এবছর অনুষ্ঠিত হলো— ‘মিস্টার এন্ড মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি-২০১৫’।

আয়োজকসূত্রে জানা যায়, খুব শীঘ্রই আরেকটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মিস্টার এবং মিস সিলেট এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটিকে বিশেষ পুরস্কারে ভূষিত করা হবে। বিশেষ বিশেষ ক্যাটাগরিতে আরো কয়েকজনকে পুরস্কার ও সম্মাননা সনদ দেয়া হবে।

লেখক : মেমিতা মেমি


উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত