সর্বশেষ

  নব্য জেএমবি’র সমন্বয়ক জঙ্গি মুসা সিলেটের আতিয়া মহলে!   আতিয়া মহলের পাশের ভবন থেকে নারী ও শিশুসহ উদ্ধার ৬   শিববাড়িতে আবারও সকাল থেকে গুলি-বিস্ফোরণের শব্দ   মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত   বিবিআইএস’র স্বাধীনতা দিবস উদযাপন ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ   আতঙ্ক-উৎকণ্ঠা আর দিনভর পটাস-পটাস, ধিড়িম-ধাড়িম   রশিদিয়া দাখিল মাদরাসায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন   শাবিতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন   আবাহনী ক্রীড়া চক্রের সভাপতিকে সংবর্ধনা   পশ্চিম সদর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন   শহরতলীর ‘দি সান মুন মেরিট হোম’র উদ্যোগে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন   স্বাধীনতার পরাজিত শত্রুরা দেশকে নিয়ে এখনো গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত: শফিকুর রহমান চৌধুরী   শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট টিম বাসে হামলায় জড়িত জঙ্গি নিহত   মাধবপুরে ব্যবসায়ীর মৃতদেহ উদ্ধার   স্বাধীনতা দিবসে মহানগর আওয়ামী লীগের পুষ্পস্তবক অর্পণ   আতিয়া মহলে ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’: ২ জঙ্গি নিহত, অভিযান চলবে   মাধবপুরে নানা আয়োজনে স্বাধীনতা দিবস পালন   মহান স্বাধীনতা দিবসে কমলগঞ্জে ছাত্রলীগের পুস্পস্তবক অর্পন   মহান স্বাধীনতা দিবসে প্লাটুন টুয়েলভ এর শ্রদ্ধাঞ্জলী

আল্লাহ শাবিপ্রবিকে ড. জাফর ইকবাল দম্পতির হাত থেকে রক্ষা করো!

প্রকাশিত : ২০১৫-০৮-৩১ ১৭:৪৯:৪৬

পীর আবিবুর রহমান : সোমবার, ৩১ আগস্ট ২০১৫ : ॥ ‘ড. জাফর ইকবাল ও তার মিসেস ড. ইয়াসমিন হক সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়টা শেষ করে দিচ্ছেন। ড. ইয়াসমীন হককে সমিহ না করার জন্য ভিসি বিরোধী আন্দোলন। ছাত্রলীগের হামলা যেমন গ্রহণযোগ্য নয়, তেমনি জাফর ইকবাল ও উনার বউয়ের কর্তৃত্ব প্রতিষ্টার আন্দোলন ও গ্রহণযোগ্য নয়। যারা হামলা করেছে তাদের গ্রেফতার ও শাস্তি চাই।

২০০০ সালের শুরুতে ভিসি ছিলেন মরহুম আদর্শ শিক্ষক প্রফেসর হাবিবুর রহমান। শাবির নামকরণ বিরোধী আন্দোলন তুঙ্গে। সে সময় মরহুম ন্যাপ নেতা পীর হবিবুর রহমানের বাড়ি গেলাম। সাথে যুব ইউনিয়ন নেতা জালাল, সমর বিজয়, সাংবাদিক রেজওয়ান।

পীর হবিব বললেন, ভিসি আমার নাতিন জামাই। তাকে বলেছি, আমেরিকা ফিরত ড. জাফর ইকবাল শিক্ষিত লোক, কিন্তু তোমাকে শেষ করে দেবে। সে সময় মৌলবাদীরা ভিসি, জাফর ইকবালসহ, জাসদ নেতা লোকমান আহমদের বাসায় বোমা হামলা করেছে।

হুমায়ুন আহমেদ ভাইয়ের টানে অনশন করলেন। প্রধানমন্এী শেখ হাসিনার কারনে নিরাপদে ফিরেও এলেন। জাফর ইকবাল নামকরণে এ ভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা মরহুম হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর নামও নিলেন না।

তিনি ঢাকায় মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরে এক আলোচনায় বললেন, তাকে শিবির নয়, ছাত্রলীগ হত্যা করবে! কি প্রতিহিংসা মানুষটার! আমি তখন যুগান্তরের বাজার ধরাতে সরেজমিন সিলেট। এ ভার্সিটিতে নেপালসহ বিভিন্ন দেশের ছাত্ররা পড়তো, সেশনজট ছিল না।

জাফর ইকবাল চীনাপন্থী লিখলে অনেকে মাইন্ড করেন। কিন্তু পরে রাজশাহীতে ওয়ার্কার্স পার্টির কংগ্রেস মঞ্চে তিনি বক্তৃতা করেন! বিএনপি জমানায়ও জাফর ইকবাল ক্যাম্পাস অশান্ত রাখেন- যখন ভিসি তার হাতের বাইরে।

মরহুম অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান শাবিতে দু’হাতে বরাদ্দ দিয়েছেন, তাদের কৃতজ্ঞতাবোধও নাই। অনেক আগে সিলেটে যুগান্তরের এক অনুষ্ঠানে দাওয়াত করতে গেলাম জাফর ইকবালকে। সাথে ছিল রেজোয়ান। ওরে বাবা কি সিলেট বিদ্ধেষী কথা, ও চেহারা! কোন অনুষ্ঠানেই যাবেন না।

কি বই মেলা, কি ভার্সিটি সবখানে বউয়ের প্রভাব ড. জাফর ইকবালের ওপর। আল্লাহ এ ভার্সিটিকে এই দম্পতির হাত থেকে রক্ষা করো।

জাগো বাহে কোনঠে সবাই। ছাত্র ভক্তদের ব্যবহার করাই তার শক্তি।'

অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার সহধর্মিনী অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক দম্পত্তি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে ধ্বংস করছেন জানিয়ে এই স্ট্যাটাসটি নিজের ফেইসবুকে পোস্ট করেছেন জনপ্রিয় সাংবাদিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাবেক নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমান। সোমবার মধ্যরাতে (রবিবার দিবাগত রাত) স্ট্যাটাসটি দেয়ার পর ফেসবুকে ঝড় ওঠে। এছাও তিনি শাবিপ্রবিকে রক্ষার করার জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছেন।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত