সর্বশেষ

  মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে খাদিমনগর যুব কল্যাণ পরিষদের শ্রদ্ধাঞ্জলি   সিলেটে কাল থেকে শুরু হচ্ছে ‘বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎস’   রশিদিয়া দাখিল মাদরাসায় মাতৃভাষা দিবস উদযাপন   সিলেটে জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে শ্রদ্ধা জানালেন বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তারা!   ‘বাংরেজি’ ছাড়াতে হবে: শেখ হাসিনা   কমলগঞ্জে ধলাই নদীতে পড়ে শিশুর মৃত্যু   কমলগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত   নানা আয়োজনে মাতৃভাষা দিবস পালন করলো মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি   ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সিলেটে শুরু হচ্ছে ‘লন্ডন ১৯৭১’ আলোকচিত্র প্রদর্শনী   স্কলার্স একাডেমিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন   জগন্নাথপুরে জুয়ার আসর থেকে আটক ৫   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে কিশোরী ধর্ষিত : ধর্ষক আটক   ব্লগার রাজীব হত‌্যা মামলার আসামি জঙ্গি রানা রিমান্ডে   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের পুষ্পস্তবক অর্পণ   সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার   কমলগঞ্জে আইনজীবির বাড়িতে ডাকাতি : আহত ১   শাবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের পুষ্পস্তবক অর্পণ   যেভাবে গ্রেফতার হলো ব্লগার রাজীব হত্যার মূল আসামি রানা   কমলগঞ্জের ধলাই নদী থেকে স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার

শাবির ভর্তি পরীক্ষায় নেই উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকরা

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১৪ ১৫:৪৮:১৯

উত্তরপূর্ব প্রতিবেদন : শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৫ ॥ ভর্তি পরীক্ষা বয়কট করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকরা।

প্রায় ছয় মাস ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসা ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক পরিষদ’ নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষা নিলেও শনিবার ভর্তি পরীক্ষা শুরুর আগে জানালেন, বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক আমিনুল হক ভূইয়ার সঙ্গে তারা কাজ করবেন না। তাই ভর্তি পরীক্ষায়ও পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করছেন না।

সরকার সমর্থক শিক্ষদের এই ফোরামের আন্দোলনে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের সমর্থন রয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ক্যাম্পাসের ৮টি কেন্দ্র এবং সিলেট নগরীর ১১টি কেন্দ্রে  ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। আর ক্যাম্পাসের ৮টি কেন্দ্র এবং সিলেট নগরীর ২০টি কেন্দ্রে ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়।

শিক্ষকদের এই অংশের আহ্বায়ক অধ্যাপক সৈয়দ সামসুল আলম বলেন, “ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে হোক আমরা সেটা চাই। তবে আমরা ভর্তি কমিটির কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করিনি এবং আজকের ভর্তি পরীক্ষায়ও অংশ গ্রহণ করছি না।

“উপাচার্য নিজে ছাত্রলীগকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালিয়ে ওই দিনই অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভায় ভর্তি কমিটি গঠন করেন। ওই সভায় শিক্ষকদের ওপর হামলার কোনো নিন্দা পর্যন্ত জানানো হয়নি।

“তাই আমরা মনে করি- এই উপাচার্যের সঙ্গে কোনো কাজে অংশ নেওয়া অনৈতিক।”

তবে উপাচার্য আমিনুল বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় তো সবার। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নতি জন্য সব শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী ও কর্মকর্তা কর্মচারীর কাজ করে যাওয়া উচিত।”

শুক্রবার রাতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, “ভর্তি পরীক্ষার কাজে অংশ নিতে আমি আগেও উনাদের আহ্বান করেছি। এখনো আমি তোমাদের মাধ্যমে আহ্বান করছি পরীক্ষার কার্যক্রমে উনারা যেন অংশ নেন।

“সরকারই আমাকে এখানে উপাচার্যের দায়িত্বে পাঠিয়েছেন, আমি তো চাই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সবাইকে নিয়ে কাজ করতে।”

উপাচার্যের এই আহ্বানের পর ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক মুশতাক আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, “বিভিন্ন বিভাগ থেকে যে তালিকা এসেছে আমরা শুধু তাদেরই পরিদর্শকের দায়িত্ব দিয়েছি।”

ওই তালিকায় উপাচার্য বিরোধী শিক্ষকরা নেই- জানিয়ে তিনি বলেন, “আমরা তো আর কাউকে জোর করে দায়িত্ব দিতে পারি না।”

শিক্ষকদের এই অংশ পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন না করলেও ভর্তি পরীক্ষায় তার প্রভাব পড়বে না বলেও জানান অধ্যাপক মুশতাক।

উপাচার্য আমিনুল হক ভূইয়ার বিরুদ্ধে ‘অসৌজন্যমূলক আচরণ’ ও প্রশাসন পরিচালনায় ‘অযোগ্যতার’ পাশাপাশি নিয়োগে ‘অনিয়ম’ ও আর্থিক ‘অস্বচ্ছতার’ অভিযোগ এনে তার পদত্যাগের দাবিতে গত ১২ এপ্রিল আন্দোলন শুরু করেন সরকার সমর্থক শিক্ষকদের ওই অংশ।

তাদের এ আন্দোলনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতি ‘অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র’ আখ্যায়িত করে ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্ত চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’ ব্যানারে উপাচার্যের পক্ষে অবস্থান নেয় সরকার সমর্থক শিক্ষকদের আরেকটি অংশ।

উপাচার্য বিরোধী আন্দোলনের মধ্যে গত ৩০ আগস্ট আন্দোলনরত শিক্ষকদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগ, যা নিয়ে দেশ জুড়ে সমালোচনা সৃষ্টি হয়।

পরে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের পদক্ষেপ না নেওয়ায় আন্দোলন সাময়িকভাবে স্থগিত করেন উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকরা।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/বিএন/ওয়াইএম/এসবি

এ বিভাগের আরো খবর


সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত