সর্বশেষ

  বঙ্গবন্ধু’র ভাষণ: উৎসব পালনের প্রস্তুতি সভা   এমপি কেয়া চৌধুরীর উপর হামলার ঘটনায় মামলা   ‘ভাই, কেমন আছেন?’   ড. মোমেনকে সিলেট জেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির অভিনন্দন   পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ২ ডিসেম্বর   কোম্পানীগঞ্জের শামীমসহ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারসহ ৩দফা দাবিতে স্মারকলিপি   নির্বাচনে বিএনপি জোটে থাকবে জামায়াত: ফখরুল   টুকেরবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষকের ইন্তেকাল   টিলাকেটে ভরাট চলছে শাহজালাল ফার্টিলাইজার কোম্পানির আবাসিক জমি!   গ্রেটার ম্যানচেস্টার আ’লীগ সভাপতি ছুরাবুর রহমান ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আমিনুল হক সিলেটে সংবর্ধিত   মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা : এমপি রানার জামিন হাই কোর্টে নাকচ   বঙ্গবন্ধুর ভাষণের স্বীকৃতি আনন্দের : ফখরুল   ওয়ানডেতে ড্যাডসওয়েলের 'ড্যাডলি' ৪৯০ রানের রেকর্ড!   অধ্যাপক ফখরুলের মৃত্যুতে এমপি ইমরান আহমদের শোক   দেওয়ান ফরিদ গাজীর মৃত্যুবার্ষিকী আজ : স্মরণসভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা   জগন্নাথপুরে সংঘর্ষে আহত ১০   শিক্ষাকে প্রাধান্য দিয়ে শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনা করছেন: এমপি আবু জাহির   খাদিমপাড়ায় পাহাড় কাটার দায়ে একজনকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা   নগরীর বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করলেন সিসিক মেয়র আরিফ   বালাগঞ্জে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ৮ হাজার শিক্ষার্থী

‘নিরাপদেই’ আছেন প্যারিসে বাংলাদেশিরা

প্রকাশিত : ২০১৫-১১-১৪ ২৩:২৪:৩৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : শনিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৫ ॥ প্যারিস শহরের কয়েকটি স্থানে বোমা হামলা ও বন্দুকধারীদের গুলিতে প্রায় দেড় শতাধিক নিহত হয়েছেন, আহতের সংখ্যা আরো বেশি। তবে এখনো কোনো বাংলাদেশির হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

প্যারিসে বসবাসরত আব্দুল আজিজ নামে এক প্রবাসী ফেসবুকে বাংলামেইলকে জানান, এখানে বেশিরভাগ বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টে কাজ করেন। তাদের গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করতে হয়। বোমা হামলার ঘটনায় সবাই আতঙ্কিত হলেও নিরাপদেই আছেন। তবে হামলার কারণে অনেকেই বাসায় ফিরতে পারেননি। কর্মস্থলেই রয়ে গেছেন।

এ হামলার পর ফ্রান্সে বসবাসরত মুসলিমদের হয়রানি করা হতে পারে বলেও আশঙ্কা করেন আব্দুল আজিজ। তিনি জানান, হামলাটি মুসলিম জঙ্গিরাই ঘটিয়েছে বলে সবার ধারণা। তাই এরপর মুসলিমদের চলাফেরায় বেশ কঠিন হবে। নিরাপত্তা জোরদারের কারণে জিজ্ঞাসাবাদ, তল্লাশি করাও হতে পারে।

শুক্রবার রাতে প্যারিসের রেস্টুরেন্ট, বার এবং  কনসার্টসহ কমপক্ষে ছয়টি স্থানে বন্দুক ও বোমা হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত বাটাক্লঁ কনসার্ট হলেই কমপক্ষে ১১২ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ওই কনসার্টে হামলার আগে শতাধিক মানুষকে জিম্মি করেছিল বন্দুকধারীরা। পরে পুলিশি অভিযানে জিম্মি নাটকের অবসান ঘটে। এসময় চার হামলাকারীও নিহত হয়।

অন্য হামলাগুলো হয়েছে স্তাদে দে ফ্রান্স এবং কয়েকটি বার ও রেস্তোরাঁয়। এর মধ্যে স্টেডিয়ামের কাছের ঘটনাটি আত্মঘাতি বোমা হামলা বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে এ হামলার জন্য ইসলামি সন্ত্রাসীদের সন্দেহ করা হচ্ছে। ফরাসি রেডিওতে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, বাটাক্লঁ কনসার্টে বন্দুকধারীরা ‘আল্লাহু আকবার’ বলে  হামলা চালিয়েছিল। ওই হামলায় একে রাইফেল ব্যবহার করা হয়েছিল যা সাধারণত জঙ্গিরাই ব্যবহার করে থাকে।

হামলার পর গোটা দেশ জুড়ে সতর্ক অবস্থা জারি করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে হাজার হাজার সেনা পুলিশ। প্যারিসের বাসিন্দাদের ঘরে থাকারও অনুরোধ জানান হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামসহ বিশ্বের বিভিন্ন নেতারা এ হামলার ব্যাপক নিন্দা করেছেন।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/টিআই-আর

সর্বশেষ খবর


সর্বাধিক পঠিত